Home » সাহিত্য » অচেনা এক ভয়ঙ্কর মৃত্যু – ডা.সুরাইয়া হেলেন

অচেনা এক ভয়ঙ্কর মৃত্যু – ডা.সুরাইয়া হেলেন

 

“এ কোন মৃত্যু?কেউ কি দেখেছে মৃত্যু এমন?
শিয়রে যাহার ওঠে না কান্না
ঝরে না অশ্রু?”…..
কবির বাণী কোটি কোটি গুন সত্যি হয়ে আবার ফিরে এসেছে!

তখন ছিলো চেনা দৃশ্যমান শত্রুর সাথে লড়াই।
পৃথিবীর মানুষ বিভক্ত বিবিধ একেক দলে।
আজ মানবজাতি একাট্টা হয়ে লড়ছে,
এক অদৃশ্য মহা শক্তিশালী অতি ক্ষুদ্র
ভাইরাস করোনার বিরুদ্ধে,কোভিড-১৯ তার নাম!

মহামারিতে উজাড় হয়ে যাচ্ছে বসুধা।
এই গ্রহের গর্বিত সুপার পাওয়ার দেশগুলোর
অহংকার চূর্ণ বিচূর্ণ হয়ে ধুলায় মিশে গেছে!
ঘোর নাস্তিকও আজ বিধাতার কাছে সমর্পিত।
হে ঈশ্বর,তুমিই শুধু পারো আমাদের রক্ষা করতে।

ভাবুন তো,আমি মরে পড়ে আছি নিজ বিছানায়
ধারে কাছেও আমাকে ঘিরে আত্মীয় বন্ধু কেউ নেই!
বুকের ওপর আছড়ে পরে কাঁদছে না আত্মজা!
অদূরে দাঁড়িয়ে চোখ মুছছে প্রাণাধিক উত্তরাধিকার!
প্রিয়তম জীবনসঙ্গী,সে ও মাথা নত নিরাপদ দূরত্বে!

এ মরদেহ শেষ বিদায়ের শ্রদ্ধা ভালোবাসাহীন
এক ভয়ংকর আতঙ্ক,পৃথিবীর অজানা আশঙ্কা!
প্রতীক্ষায় কখন আসবে মহাকাশচারী শব বহনকারী!
তারপর ভিডিও তে দেখা বায়ুনিরোধী ব্যাগে আমি!
কাফন দাফন জানাযাহীন কবর গর্তে দ্রুত নিক্ষিপ্ত!

পেছনে হাহাকার আর মানবতার চরম অসহায়ত্ব!সেই সাথে অনাদরে অবহেলায় পরে রইলো ওয়াছিয়ত নামা, সারাজীবনের আকাঙ্ক্ষার নিজের লেখা কবিতার প্রথম পংক্তি উৎকীর্ণ এপিটাফ,
“চলেই তো যাবো একদিন তোমাদের ছেড়ে”….

29 Shares