Home » জাতীয় » অবশেষে আ’লীগের উপদেষ্টা হলেন জয়নাল হাজারী!

অবশেষে আ’লীগের উপদেষ্টা হলেন জয়নাল হাজারী!

 

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা পরিষদে সদস্য পদ পেয়েছেন ফেনীর বহুল আলোচিত সাবেক সংসদ সদস্য জয়নাল আবেদীন হাজারী। আজ সোমবার সন্ধ্যায় দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এমপি স্বাক্ষর করে দলীয় অনুমোদনের চিঠি জয়নাল হাজারীর হাতে তুলে দেন। এর মধ্য দিয়ে গত ক’দিনে রাজনীতিক অঙ্গনে আলোচনা-সমালোচনার অবসান হলো।

দলীয় সূত্র জানায়, গত ৩ অক্টোবর বুধবার রাতে গণভবন থেকে এমন একটি সংবাদ মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। রাতেই কয়েকটি টেলিভিশন, অনলাইন এবং পরদিন পত্রিকায়ও সংবাদটি প্রকাশিত হলে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। দুপুরে সচিবালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে দলের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের বলেন, তিনি এ বিষয়ে কিছুই জানেন না। তার এ বক্তব্যে বিষয়টি নিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়।

খবরটি জানাজানি হলে প্রধানমন্ত্রীর সাবেক প্রটোকল অফিসার আলাউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী নাসিমসহ অনেকে রাতেই জয়নাল হাজারীকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অভিনন্দন জানান। পরে ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের পর তিনি ওই স্ট্যাটাস সরিয়ে নেন। এর মধ্য দিয়ে রাজনীতিক অঙ্গনে তুমুল আলোচনা-সমালোচনা সৃষ্টি হয়।

এছাড়া ২৬ অক্টোবর ফেনী সফরে আসলে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বিষয়টি নাকচ করেন। একইভাবে আলাউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী নাসিমও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জয়নাল হাজারীকে উপদেষ্টা করা হয়নি বলে স্ট্যাটাস দেন। অবশ্য পরবর্তীতে তা তিনি সরিয়ে নেন।

আজ সোমবার সাবেক সংসদ সদস্য জয়নাল হাজারীকে কার্যালয়ে ডেকে এনে দলের উপদেষ্টা পদে মনোনয়নের চিঠিটি হস্তান্তর করেন।

চিঠিতে বলা হয়, ‘সালাম নিবেন। আনন্দের সঙ্গে জানানো যাচ্ছে যে, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সভাপতি দেশরতœ জননেত্রী শেখ হাসিনা এমপি গত ২২ ও ২৩ অক্টোবর অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ২০তম জাতীয় কাউন্সিল কর্তৃক প্রদত্ত ক্ষমতাবলে আপনাকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য হিসেবে মনোনয়ন দিয়েছেন।’

বেশ কিছুদিন ধরেই অসুস্থ ফেনীর এই সাবেক সংসদ সদস্যকে গত সেপ্টেম্বরে চিকিৎসার জন্য ৪০ লাখ টাকা অনুদানও দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাকে ভালোভাবে চিকিৎসা করানোর পরামর্শ দেন প্রধানমন্ত্রী।

জয়নাল হাজারী ১৯৮৪ সাল থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত প্রায় বিশ বছরের বেশি সময় ধরে ফেনী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ফেনী-২ আসন থেকে ১৯৮৬, ১৯৯১ এবং ১৯৯৬ সালে তিনবার সাংসদ হিসেবে নির্বাচিত হন তিনি। প্রাইভেট বাহিনী ‘ক্লাস কমিটি’ গঠন করে তুমুল সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি। একপর্যায়ে খ্যাতি পান গডফাদার হিসেবেও। ২০০১ সালের ১৭ আগস্ট যৌথবাহিনীর অভিযানের মুখে ফেনী থেকে দেশান্তরী হন দাপুটে আওয়ামী লীগ নেতা জয়নাল হাজারী। ২০০৯ সালে মামলার স্তুপ নিয়ে দেশে ফিরেন। একে একে সব মামলা থেকে অব্যাহতি পেলেও হারানো প্রভাব ফিরে পাননি। একপর্যায়ে ফেনী ছেড়ে ২০১০ সাল থেকেই রাজধানীতে বসবাস করছেন। জয়নাল হাজারী ‘হাজারিকা প্রতিদিন’ নামে একটি দৈনিক পত্রিকা সম্পাদনা করেন।

নিউটার্ন.কম/RJ

56 Shares