Home » আন্তর্জাতিক » আকর্ষণীয় ম্যাচ আজ প্রিমিয়ার লিগের

আকর্ষণীয় ম্যাচ আজ প্রিমিয়ার লিগের

 

আজ রাত সাড়ে নয়টায় নিজেদের মাঠ ওল্ড ট্রাফোর্ডে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী লিভারপুলের মুখোমুখি হচ্ছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।
‘ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড আর লিভারপুল যদি লিগ টেবিলের একদম তলানিতে অবনমনের শঙ্কায় থাকা দুটি দলও হয়, তাও ইংলিশ লিগের সবচেয়ে আকর্ষণীয় ম্যাচ হবে লিভারপুল-ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ম্যাচটা…’

বক্তব্যটা এক ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সমর্থকের। বিশ্বের বাকি সবকিছুতে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড আর লিভারপুলের সমর্থকেরা একে অন্যের বিরোধিতা করলেও, এই এক বাক্যে দুই ক্লাব নির্বিশেষে সকলে সহমত হবেন। আর কেন হবেন না? ইংলিশ ফুটবল ইতিহাসের সবচেয়ে সফল দুই দল পরস্পরের মুখোমুখি হচ্ছে, সে ম্যাচটা সবচেয়ে আকর্ষণীয় ম্যাচ হবে না তো কোনটা হবে?

লিভারপুল লিগ জিতেছে ১৮ বার। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড তার চেয়ে দুবার বেশি। ওদিকে ইউরোপ-সেরা হওয়ার দৌড়ে লিভারপুলের চেয়ে পিছিয়ে আছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। লিভারপুল জিতেছে ছয়বার, ইউনাইটেড তিনবার। এফএ কাপের দৌড়ে এগিয়ে ইউনাইটেড, তাদের এক ডজন শিরোপার বিপরীতে লিভারপুলের আছে সাতটা। এই পিছিয়ে থাকাটা লিভারপুল কড়ায়-গন্ডায় পুষিয়ে নিয়েছে লিগ কাপে এসে। এ শিরোপা তাঁরা জিতেছে আট বার, ইউনাইটেড পাঁচবার। সব মিলিয়ে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড শিরোপা জিতেছে ৬৬, লিভারপুল ৬২। এত ট্রফি ইংলিশ লিগের আর অন্য কোনো ক্লাবের নেই।

মুখোমুখি লড়াইয়েও এগিয়ে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। সব মিলিয়ে ২০২ ম্যাচের মধ্যে ৮০ ম্যাচ জিতেছে তাঁরা। ৬৬ ম্যাচ জিতেছে লিভারপুল। বাকি ৫৬ ম্যাচ অমীমাংসিত।

ইউনাইটেডের এই এগিয়ে যাওয়ার পেছনে নব্বই-পরবর্তী যুগে স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসনের ভূমিকা সবচেয়ে বেশি। ভদ্রলোক যখন ইউনাইটেডের দায়িত্বে আসলেন, লিভারপুল তখন ইংল্যান্ডের একচ্ছত্র অধিপতি। দায়িত্ব নিয়েই ঘোষণা দিলেন, ‘দলটাকে নিয়ে এখন কি করতে পারছি বা কি হচ্ছে এটা আমার মূল চ্যালেঞ্জ নয়, আমার মূল চ্যালেঞ্জ হলো লিভারপুলকে ইংলিশ ফুটবলের শীর্ষস্থান থেকে সরানো।’ দায়িত্ব নেওয়ার পরের সাতাশ বছরে ঠিক সেই কাজটাই করেছেন এই লোক। একই সময়ে লিভারপুল শুধুই নিচে নেমেছে। মাঝেমধ্যে দুই-একটা ট্রফি জিতলেও, ইউনাইটেডের মতো ধারাবাহিক সাফল্যের মুখ দেখেনি প্রায় ত্রিশ বছর।

ফার্গুসন অবসর নেওয়ার পর থেকে পাশার দান আবারও পাল্টে গেছে যদিও। ওদিকে লিভারপুলের দায়িত্বে এসেছেন ইয়ুর্গেন ক্লপ। হাসিখুশি এই জার্মান ম্যানেজার গোটা দলটার মধ্যে আত্মবিশ্বাস ফিরিয়ে এনেছেন। লিভারপুলকে আবারও শিখিয়েছেন জয়ের মন্ত্র। কিছুদিন আগেই উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ আর সুপার কাপ জিতেছে লিভারপুল। লিগ না জিততে পারলেও লিভারপুল যেভাবে খেলছে, লিগ খরা কাটানো সময়ের ব্যাপার মাত্র। ওদিকে ট্রফি জিততে ভুলে গেছে ইউনাইটেড। ওলে গুনার সুলশারের অধীনে নিজেদের খুঁজে ফিরছে তারা।

ফর্মের দিক দিয়ে একদম দুই প্রান্তে দুই দল। কিন্তু, দিন শেষে ম্যাচটা লিভারপুল-ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের। যে ম্যাচ শুরু হওয়ার পর আগে ফর্ম, পরিসংখ্যান সবকিছু নস্যি হয়ে যায়। আজ রাত সাড়ে নয়টায় এই বৈরিতার মহাকাব্যে যুক্ত হতে যাচ্ছে আরেকটি পাতা। কে জিতবে আজ? নিজেদের মাঠে সম্মান রক্ষা করতে পারবে ইউনাইটেড? না নিজেদের ফর্মের প্রতি সুবিচার করে শত্রুর মাঠেই শত্রুকে নাস্তানাবুদ করবে লিভারপুল?

অপেক্ষা রাত সাড়ে নয়টার!

নিউটার্ন.কম/AR

8 Shares