Home » বিনোদন » উইল স্মিথ: চড়কাণ্ডের জেরে অস্কার অ্যাকাডেমি থেকে পদত্যাগ করলেন হলিউড তারকা

উইল স্মিথ: চড়কাণ্ডের জেরে অস্কার অ্যাকাডেমি থেকে পদত্যাগ করলেন হলিউড তারকা

বিনোদন ডেস্ক :

অস্কার অনুষ্ঠান চলার সময় উপস্থাপক ও কৌতুকাভিনেতা ক্রিস রককে চড় মারার ঘটনার জের ধরে অ্যাকাডেমি অব মোশন পিকচার আর্ট অ্যান্ড সায়েন্স থেকে পদত্যাগ করেছেন অভিনেতা উইল স্মিথ।

”চুরানব্বইতম অস্কার একাডেমি পুরস্কার অনুষ্ঠানে আমার আচরণ ছিল মর্মান্তিক, বেদনাদায়ক এবং অমার্জনীয়” একটি বিবৃতিতে বলেছেন উইল স্মিথ।

অ্যাকাডেমি জানিয়েছে, তারা পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছে। সেই সঙ্গে উইল স্মিথের ওই আচরণের শৃঙ্খলাভঙ্গের বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে যে কার্যক্রম শুরু করেছে, তা চালিয়ে যাবে।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ম্যাগাজিন ফোর্বস জানিয়েছে, পদত্যাগ করলেও উইল স্মিথকে তার প্রাপ্ত পুরস্কার ফেরত দিতে হবে না। তিনি ভবিষ্যতে পুরস্কারের জন্য মনোয়ন পাবেন, অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণও পেতে পারেন।

কিন্তু অস্কারের কোন আয়োজনে ভোট দিতে পারবেন না।

 

ওই ঘটনার এক ঘণ্টা পরেই কিং রিচার্ড চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য শ্রেষ্ঠ অভিনেতার পুরস্কার জয় করেন উইল স্মিথ। ওই চলচ্চিত্রে তিনি টেনিস তারকা ভেনাস ও সেরেনা উইলিয়ামসের পিতার চরিত্রে অভিনয় করেন।

(ওই আচরণের মাধ্যমে) যাদের আমি আহত করেছি, তাদের তালিকা অনেক লম্বা। যাদের মধ্যে আছে, ক্রিস, তার পরিবার, আমাদের অনেক বন্ধু ও ভালোবাসার মানুষ, অনুষ্ঠানে অংশ প্রতিটি মানুষ ও বিশ্বের অসংখ্য দর্শক,” শুক্রবার বলেছেন উইল স্মিথ।

”আমি অ্যাকাডেমির বিশ্বাস ভঙ্গ করেছি। সেই সঙ্গে অন্যান্য নমিনি ও বিজয়ীদের আনন্দ উদযাপন করা থেকে তাদের বঞ্চিত করেছি। আমি সত্যিই দুঃখিত,” তিনি বলছেন।

অ্যাকাডেমি প্রেসিডেন্ট ডেভিড রুবিন বলেছেন, তারা উইল স্মিথের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছেন। কিন্তু তার বিরুদ্ধে যে শৃঙ্খলা ভঙ্গজনিত কার্যক্রম শুরু হয়েছে, তা অব্যাহত থাকবে।

বোস্টনে একটি স্ট্যান্ড-আপ অনুষ্ঠানে ক্রিস রক বলেছেন, সেদিন যা ঘটেছে, এখনো তিনি তার মধ্য থেকে বের হতে পারেননি।

এর আগে চড় মারায় উইল স্মিথের বিরুদ্ধে কোন মামলা না করার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন রক।

উইল স্মিথের স্ত্রী জেডা পিঙ্কেট স্মিথকে ওই ঘটনার নীরবতা ভেঙ্গে ইন্সটাগ্রামে এক পোস্টে বলেছেন, ”এখন এসব ভুলে যাওয়ার সময়, সেজন্য আমি আছি।”

 

কী ঘটেছিল সেদিন:
সাতাশে মার্চ ২০২২ তারিখে লস অ্যাঞ্জেলসের ডলবি থিয়েটার হলিউডে চলছিলো ৯৪তম অস্কার পুরস্কার বিতরণীর অনুষ্ঠানমালা।

বিশ্বজুড়ে কোটি কোটি মানুষ টেলিভিশনে দেখছিলেন এই অনুষ্ঠানের সরাসরি সম্প্রচার।

অন্য একটি ক্যাটাগরির অস্কার হস্তান্তরের সময় মঞ্চে কৌতুকাভিনেতা ক্রিস রক। পুরস্কার দেয়ার আগে কিছু কৌতুক পরিবেশন করছিলেন তিনি।

তিনি উইল স্মিথের স্ত্রী অভিনেত্রী জেডা পিঙ্কেটের কামানো মাথার দিকে ইঙ্গিত করে বলে বসলেন, “জেডা, জিআই জেন টু-এর জন্য আমার আর তর সইছে না”।

ক্রিস রক মূলত ১৯৯৭ সালের ছায়াছবি জিআই জেন-এর প্রসঙ্গ টেনেছিলেন, যেখানে অভিনেত্রী ডেমি মুরের চুল খুব ছোট করে ছাঁটা ছিল।

এই রসিকতার পরেই উইল স্মিথ মঞ্চে উঠে যান এবং ক্রিস রককে চড় মেরে বসেন। নিজের আসনে ফিরে আসার সময়ে উইল স্মিথ চিৎকার করে বলছিলেন, “তোমার …(প্রকাশে অযোগ্য গালি) মুখ থেকে আমার স্ত্রীর নাম উচ্চারণ করা বন্ধ রাখো”।

জেডা পিঙ্কেট স্মিথ আগেই তার একটি অসুখের কথা জানিয়েছেন – অ্যালোপেশিয়া নামে এই রোগের কারণে তার চুল পড়ে যাওয়ার সমস্যা তৈরি হয়েছে।

ঘটনার আকস্মিকতায় ক্রিস রক বিহ্বল হয়ে পড়েন। পরে অবশ্য পরিস্থিতি হালকা করার জন্য তিনি দর্শকদের উদ্দেশ্যে বলেন, “এটি ছিল টেলিভিশনের ইতিহাসের সবচাইতে স্মরণীয় রাত”।

তারপর তিনি সেরা প্রামাণ্যচিত্রের অস্কারটি হস্তান্তর করেন। এ কারণেই সেসময় মঞ্চে উঠেছিলেন তিনি।

এর কিছুক্ষণ পর ওই বছরের সেরা অভিনেতার পুরস্কার গ্রহণ করেন উইল স্মিথ।

এসময় তিনি তার কিছুক্ষণ পূর্বের কৃতকর্মের জন্য ক্ষমা চান।

জীবনে প্রথমবারের মত অস্কার পুরস্কার গ্রহণের সময় দেয়া প্রতিক্রিয়া উইল স্মিথ বলেন, “আমি অ্যাকাডেমির কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করতে চাই। আমি বাকি সব মনোনীতদের কাছেও ক্ষমা প্রার্থনা করতে চাই”।

“শিল্প হচ্ছে জীবনের প্রতিচ্ছবি। আমাকে এখন একজন পাগল পিতার মত দেখাচ্ছে, যেমনটি সবাই বলে রিচার্ড উইলিয়ামসকে নিয়ে। কিন্তু ভালবাসা তোমাকে দিয়ে পাগলামি করিয়ে নেবে”।

কিন্তু পরিস্থিতি সেখানেই থেমে থাকেনি দেখা যাচ্ছে।

এর পরের কদিন বিশ্ববাসীর আলোচনার এক নম্বর বিষয়ই ছিল অস্কার মঞ্চের এই চড়কাণ্ড।

0 Shares