Home » আন্তর্জাতিক » করোনাভাইরাস: ললিপপ অর্ডার করে চাকরি হারালেন মাদাগাস্কারের মন্ত্রী

করোনাভাইরাস: ললিপপ অর্ডার করে চাকরি হারালেন মাদাগাস্কারের মন্ত্রী

 

নিউটার্ন ডেস্ক :
স্কুলের শিশুদের জন্য ২০ লাখ ডলারের ললিপপ কেনার পরিকল্পনা করায় পূর্ব আফ্রিকার দেশ মাদাগাস্কারের শিক্ষামন্ত্রীকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।

করোনাভাইরাসের একটি অপরীক্ষিত ভেষজ ওষুধ খাওয়ার পর মুখের তিক্ততা দূর করতে প্রত্যেক শিশুকে তিনটি করে ললিপপ খাওয়ানোর পরিকল্পনা ছিল মাদাগাস্কারের শিক্ষামন্ত্রী রিজাসোয়া আন্দ্রিয়ামানানার।

তবে মাদাগাস্কারের প্রেসিডেন্ট এই প্রস্তাবের বিরোধিতা করার পর তা বাতিল হয়ে যায়।

প্রেসিডেন্ট আন্দ্রি রাজোয়েলিনা মাদাগাস্কারে করোনাভাইরাসের সম্ভাব্য ওষুধ হিসেবে একটি ভেষজ টনিক ব্যবহার করার পক্ষে অবস্থান নিয়েছেন।

আফ্রিকার বেশ কয়েকটি দেশ করোনাভাইরাস চিকিৎসায় ব্যবহারের জন্য নানারকম ভেষজ আমদানি করছে, যদিও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা সতর্ক করেছে যে সেগুলো কোভিড-১৯ এর চিকিতসায় কার্যকর কিনা তা প্রমাণিত নয়।

মাদাগাস্কারের মেডিক্যাল অ্যাকাডেমিও ঐ ভেষজ ওষুধের কার্যকারিতা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছে। তারা মনে করছে এই ওষুধ মানুষের স্বাস্থ্যঝুঁকিও তৈরি করতে পারে।

প্রেসিডেন্ট রাজোয়েলিনা অবশ্য ঐ টনিকের সমালোচনায় কান দিচ্ছেন না। আফ্রিকার প্রতি পশ্চিমা বিশ্বের মনোভাব যে তাচ্ছিল্যপূর্ণ, টনিকের সমালোচনা তারই প্রমাণ বলে কটাক্ষ করেছেন তিনি।

ফরাসি নিউজ চ্যানেল ফ্রান্স ২৪’কে তিনি বলেন, “যদি কোনো ইউরোপিয়ান দেশ এই ওষুধ আবিষ্কার করতো, তাহলে কি এটি নিয়ে এত সন্দেহ প্রকাশ করা হতো? আমার মনে হয় না।”

মাদাগাস্কারে এখন পর্যন্ত প্রায় এক হাজার মানুষের মধ্যে করোনাভাইরাস সনাক্ত হয়েছে, মারা গেছে ৭ জন।

মাদাগাস্কারে লকডাউন কার্যকর করার জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ নেয়া হলেও প্রাদুর্ভাব নিয়ন্ত্রণে প্রেসিডেন্টের পদক্ষেপ নিয়ে সমালোচনা হয়েছে।

3 Shares