Home » জাতীয় » করোনার ২য় ঢেউ মোকাবেলায় তৎপর হোমনা থানা পুলিশ

করোনার ২য় ঢেউ মোকাবেলায় তৎপর হোমনা থানা পুলিশ

হোমনা প্রতিিধি :
‘মাস্ক পরার অভ্যেস, করোনামুক্ত বাংলাদেশ, করোনা ভাইরাসে আতঙ্ক নয় দরকার সচেতনতা ও সতর্কতা’ এই বিষয়কে প্রতিপাদ্য করে কুমিল্লার হোমনায় পুলিশের মাস্ক পরিধান, স্বাস্থ্যবিধি মানা, মাস্ক পরার জন্য নিয়মিত মাইকিং ও প্রচার-প্রচারণা করে যাচ্ছে। এবং যারা মাস্ক পরছেন না তাদেরকেই দিয়ে মাস্ক পড়ার বিষয়ে সাধারণ জনগণকে আহ্বান জানানো হচ্ছে।
২১ মার্চ রোববার সকালে উপজেলা সদরের বাসস্ট্যান্ডে হোমনা থানা পুলিশের আয়োজনে মাস্ক বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল কায়েস আকন্দ।
মাস্ক বিতরণকালে হোমনা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল কায়েস আকন্দ বলেন, হঠাৎ করে বিশ্বে আবার করোনা মহামারির প্রকোপ বৃদ্ধি পেয়েছে, করোনা রোগী বৃদ্ধি পেয়ে এখন দেশে হাসপাতালে শয্যার সংকট সৃষ্টি হচ্ছে আর তাই আমাদের সবাইকে আবারও জোরালোভাবে করোনার বিরুদ্ধে অবস্থান নিতে হবে। মাস্ক ব্যবহারের পাশাপাশি হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে হবে। কোভিড-১৯ এর দ্বিতীয় ধাপ মোকাবেলায় সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।
এসময় উপস্থিত ছিলেন – পৌরমেয়র অ্যাড. নজরুল ইসলাম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. মহাসিন সরকার,উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহিনুজ্জামান খোকন,পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো.মোয়াজ্জেম হোসেন মোসলেম,উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. কায়সার আহাম্মদ বেপারী, হোমনা প্রেস ক্লাবের সভাপতি আবদুল হক সরকার, উপজেলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি মোর্শেদুল ইসলাম শাজু,সাধারণ সম্পাদক মো. আক্তার হোসেন,পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আমিনুর রসুল, সাংবাদিক আবু রায়হান চৌধুরী, মো. আইয়ুব আলী,মুকবুল হোসেন,মোরশিদ আলম ও কবি দেলোয়ার, পুলিশ সদস্য এস আই মোতাব্বির হোসেন,আশিকুর রহমান,সেকান্দর মোল্লা,ইকবাল মনির, রফিকুল ইসলাম শুভ,এ এস আই নন্দন কুমার,আনোয়ার হোসেন,বদরুল আজিম,মোর্শেদুল ইসলাম, কনস্টেবল খাদিজা আক্তার,নাহিদা আক্তার,মো. মনিরুল ইসলামসহ পুলিশের অন্যান্য সদস্য বৃন্দ।
পরে হোমনা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল কায়েস আকন্দের নেতৃত্বে সচেতনতামূলক একটি র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে মানুষকে সচেতনতায় উদ্বুদ্ধ করতে পুলিশ সদস্য, জনপ্রতিনিধি ও রাজনৈতিক ব্যক্তিরা বিভিন্ন যানবাহনের চালক, যাত্রী ও পথচারীদের মাঝে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ করেন। জরুরি কাজে অথবা বাইরে ঘোরাফেরার সময় মাস্ক না থাকলে জরিমানা করারও হুঁশিয়ারি দেন থানা অফিসার ইনচার্জ।
এছাড়াও উপজেলার ৯টি ইউনিয়ন ও পৌরসভার বিট পুলিশিংয়ে এ কর্মসূচি চলমান থাকবে।n

0 Shares