Home » জাতীয় » করোনা আক্রান্তরা নেগেটিভ হলেই সুস্থ নয়
করোনা আক্রান্তরা নেগেটিভ হলেই সুস্থ নয়

করোনা আক্রান্তরা নেগেটিভ হলেই সুস্থ নয়

নিজস্ব প্রতিবেদক, নিউটার্ন.কম :

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের নেগেটিভ রিপোর্ট আসলেই যে তারা সুস্থ হয়ে গেছেন, এটা ঠিক নয়। করোনামুক্ত হওয়ার পর দুই থেকে তিন মাস চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণে থাকার পরামর্শ দিয়ে বিশেষজ্ঞরা বলেন, নেগেটিভ রিপোর্ট আসার পরও হার্ট, ফুসফুস, লিভার, কিডনি, ব্রেনসহ শরীরের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গের ক্ষতি হতে পারে। এক্ষেত্রে দেশের এক শ্রেণির ডাক্তার ও রোগীদের অবহেলায় অনেক রোগীর মৃত্যু হচ্ছে। এদিকে করোনায় আক্রান্ত রোগীরা বিলম্বে ডাক্তারের কাছে যান। উপসর্গ থাকলেও দেরি করে পরীক্ষা করেন। পরীক্ষা করে পজিটিভ রিপোর্ট আসার পর দেখা যায়, তার আগেই এই ভাইরাস নীরবে শরীরের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গের ৫০ থেকে ৮০ ভাগ ক্ষতি করে ফেলেছে। এক্ষেত্রে মৃত্যুর ঝুঁকি বেশি থাকে।

আরও পরনঃ বার্ড ফ্লু’র সংক্রমণ রোধে তিনটি মন্ত্রণালয়কে অনুরোধ জানিয়েছে মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ মন্ত্রণালয়

জাতির পিতার দেয়া শিক্ষাকে পুঁজি করে মানুষের জন্য কাজ করছি : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ব্যক্তিগত চিকিত্সক অধ্যাপক ডা. এবিএম আব্দুল্লাহ বলেন, করোনায় আক্রান্ত রোগীর নেগেটিভ রিপোর্ট আসা মানেই তাকে সুস্থ ভাবা ঠিক না। অনেকে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার আগে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত ছিলেন না। কিন্তু করোনা নেগেটিভ আসার পর তার ডায়াবেটিস ধরা পড়েছে। আবার কারোর উচ্চ রক্তচাপ ধরা পড়ে। নেগেটিভ রিপোর্ট আসার পরও অনেকের মাংসপেশি ব্যথা করে। ফুসফুস, হার্ট, কিডনি, লিভারসহ শরীরের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গের ক্ষতি হতে পারে। তাই করোনা আক্রান্ত রোগীদের নেগেটিভ রিপোর্ট আসার পরও দুই থেকে তিন মাস চিকিত্সকদের পরামর্শে থাকতে হবে। নেগেটিভ রিপোর্টের পরও যে মারাত্মক স্বাস্থ্য ঝুঁকি থাকে, এই বিষয়টি এক শ্রেণির ডাক্তার ও রোগীরা অবহেলা করে। যার মাশুল দিতে হয় জীবন দিয়ে।

 

 

নিউটার্ন.কম/এআর

0 Shares