Home » জাতীয় » কাউনিয়ায় ১২০ পরিবারে আনন্দের বন্যা

কাউনিয়ায় ১২০ পরিবারে আনন্দের বন্যা

সারওয়ার আলম মুকুল,কাউনিয়া (রংপুর) : বালাপাড়া হরিশ্বর রেলকলনীর হোটেলে কাজ করা দিনমজুর মোছাঃ রেবা বেগম (৪৮)। জমি-ভিটে কিছু না থাকায় স্বামী রাজু মিয়া আর সন্তানদের নিয়ে ‘যেখানে রাত, সেখানেই কাত’ অবস্থা তার। এর পর স্থান হয় রেল কলনীর পরিত্যক্ত বাসায়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একটি উদ্যোগ পাল্টে দিয়েছে রেবা বেগম এর দুঃখ-দুদর্শায় ভরা জীবনের চিত্র। এক যুগের যাযাবর জীবন ছেড়ে পরিবার নিয়ে শনিবার (২৩ জানুয়ারি) রেবা বেগম উঠে ‘স্থায়ী ঠিকানা’ নতুন ঘরে। শুধু রেবার পরিবার নয়, তুলশি রানী, মুন্নি বেগম, আয়শা আক্তার, কবির মিয়াসহ রংপুর বিভাগের কাউনিয়া উপজেলায় ১ম ধাপে ১২০টি গৃহহীন পরিবারকে শনিবার নতুন ঘর উপহার দিয়ছে সরকার। মুজিববর্ষ উপলক্ষে তাদের এসব ঘর তৈরি করে দেওয়া হয়েছে। ফলে এসব পরিবারে বইছে আনন্দের বন্যা। প্রতিটি ঘর নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ১ লাখ ৭১ হাজার টাকা। ইটের দেওয়াল, কংক্রিটের মেঝে এবং টিনের ছাউনি দিয়ে তৈরি এসব সেমিপাকা ঘরে দুইটি শয়নকক্ষ, একটি খোলা বারান্দা, একটি রান্না ঘর এবং একটি শৌচাগার আছে। সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, প্রথম পর্যায়ে কাউনিয়া উপজেলায় ৬টি ইউনিয়নের সবচেয়ে বেশি ঘর পেয়েছেন সারাই ইউনিয়নের মানুষ। এই ইউনিয়নে ৫২ টি গৃহহীন পরিবারকে নতুন ঘরের চাবি তুলে দেয়া হয়েছে। এ হারাগাছ ইউনিয়নে ৩৮টি, শহীদবাগ ইউনিয়নে ১৪টি, বালাপাড়া ইউনিয়নে ১৪টি, কুর্শা ইউনিয়নে ২টি, মোট ১২০টি গৃহহীন পরিবার নতুন ঘর উপহার পেয়েছে। কাউনিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছাঃ উলফৎ আরা বেগম জানান, মুজিববর্ষে ভূমিহীন ও গৃহহীন সব পরিবারকে নতুন ঘর তৈরি করে দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। গত ২৩ জানুয়ারি সকালে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে নতুন ঘর উপহার দেয়ার কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী। উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ আহসান হাবীব সরকার বলেন, প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে নতুন ঘর উপহার দেয়ার কার্যক্রম উদ্বোধনের পর কাউনিয়া উপজেলায় ১ম ধাপে ১২০টি গৃহহীন পরিবারকে নতুন ঘর বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে। বাকিদের পর্যায়ক্রমে নতুন ঘর তৈরি শেষে হস্তান্তর করা হবে।

0 Shares