Home » প্রধান খবর » ক্যাসিনো কেলেঙ্কারিতে জড়িত কাউকে ঠাঁই দেবে না শেখ হাসিনা

ক্যাসিনো কেলেঙ্কারিতে জড়িত কাউকে ঠাঁই দেবে না শেখ হাসিনা

নিজস্ব প্রতিবেদক, নিউটার্ন.কম : প্রশ্নবিদ্ধ ক্যাসিনো কেলেঙ্কারির সঙ্গে জড়িত ও কোন টেন্ডারবাজ ব্যক্তিকে আগামীতে আওয়ামী লীগের সঙ্গে সংযুক্ত হতে দেয়া হবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক। শনিবার দুপুরে নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত এক সভায় তিনি এ তথ্য জানান।

সভায় নানক বলেন, ‘আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কখনো কোন অন্যায়কে প্রশ্রয় দেয়নি, দেবেও না। তাই আগামীতে আওয়ামী লীগের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের সম্মেলনের সময় প্রশ্নবিদ্ধ কোন ব্যক্তিকে দলের সঙ্গে সংযুক্ত করবে না শেখ হাসিনা।’

আসন্ন সম্মেলনের বিষয়ে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, দলে স্বজনপ্রীতি বাদ দিয়ে ত্যাগী ও পোড় খাওয়া নেতাকর্মীদের দলে সুযোগ করে দিন, তা না হলে আওয়ামী লীগ বর্তমানে যেরকম সুসংগঠিত দল আছে তা আর থাকবে না। বিএনপি-জামাতকে সহ্য করতে পারবেন, কিন্তু যিনি সারাজীবন আওয়ামী লীগের জন্য ত্যাগ স্বীকার করেছেন, তাকে সহ্য করতে পারবেন না; এটা তো হতে পারে না। আসুন আমরা সবাই মিলে শপথ গ্রহণ করি, আওয়ামী লীগের সম্মেলনে কেন্দ্রীয় থেকে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে কোন কমিটিতে যেন কোন প্রকারের স্বাধীনতা বিরোধী, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরোধী কেউ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগে প্রবেশ করতে না পারে।

দেশে বিরোধী দলের বিষয়ে আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ‘বাংলাদেশের বিরোধী দলের অবস্থা খুবই ভালো। তা না হলে ওরা রাজপথে কথাই বলতে পারতো না, যেটা আমাদের সাথে হয়েছিল। কিন্তু ওদেরটা দেখা যায়না, আর আমাদেরটা দেখা যায়। বাংলাদেশের মানুষ উন্নয়ন পেয়েছে বলেই আমাদের ক্ষমতায় এনেছে। বাংলাদেশে এখন সারা বিশ্বের কাছে উন্নয়নের রোল মডেল। শেখ হাসিনার উপর জনগণের আস্থা রয়েছে বলেই কোন নির্বাচনকে তারা বানচাল করতে পারেনি।’

নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আমি নমিনেশন না পেয়ে একটিবারের জন্য নেত্রীকে জিজ্ঞেস করলাম না আমাকে কেন নমিনেশন দেয়া হয়নি, বরং ঐ দিন বিকেলে আমি নেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে গিয়ে নির্বাচন পরিচালনার জন্য কাজ করে গিয়েছি, একটিবারের জন্য ক্ষমতার অপব্যবহার করিনি, এ হচ্ছে আমাদের রাজনীতি। নতুন নেতৃত্ব যারাই আসবেন, দেশ ও মানুষের পাশাপাশি দলের জন্য কাজ করে যাবেন।

এ সময় তিনি আরো জানান, আমরা একটি ডাটাবেজ তৈরি করব যেখানে তৃণমূল আওয়ামী লীগ থেকে উচ্চ পর্যায়ের নেতাকর্মীরা সংযুক্ত থাকবেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা্র প্রত্যেকটির দিকনির্দেশনা খুব দ্রুত চলে আসবে নেতাকর্মীদের মাঝে। কোথায়, কখন, কাদের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে, লড়াই করতে হবে, দেশ ও জাতির কল্যাণে কি করণীয়, এই সবকিছু ডাটাবেজের মাধ্যমে দ্রুত নেতাকর্মীদের মাঝে পৌঁছানোর ব্যবস্থা করা হবে। পাশাপাশি সেখানে সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের মত প্রকাশের ব্যবস্থাও থাকবে।

নিউটার্ন.কম/এআর

0 Shares