Home » জাতীয় » খাগড়াছড়ি-রাঙামাটি পার্বত্য জেলার প্রধান সড়কে কুতুবছড়িতে বেইলি ব্রিজ ভেঙে পাথর বোঝায় ভর্তি ট্রাক খালে
খাগড়াছড়ি-রাঙামাটি পার্বত্য জেলার প্রধান সড়কে কুতুবছড়িতে বেইলি ব্রিজ ভেঙে পাথর বোঝায় ভর্তি ট্রাক খালে

খাগড়াছড়ি-রাঙামাটি পার্বত্য জেলার প্রধান সড়কে কুতুবছড়িতে বেইলি ব্রিজ ভেঙে পাথর বোঝায় ভর্তি ট্রাক খালে

লোকমান হোসেন খাগড়াছড়িঃ

খাগড়াছড়ি-রাঙামাটি পার্বত্য জেলার প্রধান সড়কে কুতুবছড়িতে বেইলি ব্রিজ ভেঙে পাথর বোঝায় ভর্তি ট্রাক খালে পানিতে পড়ে চালকসহ ৩জন নিহত হয়েছে। রাঙামাটির সদর উপজেলার কুতুবছড়ি এলাকায় বেইলি ব্রিজ ভেঙে পাথর বোঝাই ট্রাক পানিতে পড়ে গেলে এতে চালকসহ তিনজন নিহত হয়। মঙ্গলবার(১২ই জানুয়ারি) সকালের দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এরপর থেকে রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি আন্ত: প্রধান সড়কে সকল যান চলাচল বন্ধ আছে। দুর্ঘটনার পর স্থানীয় এলাকাবাসী, পুলিশ, সেনাবাহিনী ও ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধার তৎপরতা চালানো হয়।

মঙ্গলবার ভোরে এ দুর্ঘটনায় নিহতদের মধ্যে দুজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তাঁরা হলেন ট্রাকের চালক চট্টগ্রামের চকরিয়ার আরাফাত হোসেন(৪৫) ও সিরাজগঞ্জের রায়পুরের জহিরুল ইসলাম(৪৭)। তবে এখনও পর্যন্ত ২জনের নাম পাওয়া গেলেও অন্য একজনের পরিচয় জানা সম্ভব হয়নি। নদীতে ডুবে গেলে ট্রাকে থাকা ৩জনের মৃত দেহ উদ্ধার করে স্থানীয় সাধারণ মানুষ, পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস দল ও সেনাবাহিনী কর্মীরা।

নিহতের বিষয় নিশ্চিত করেছেন রাঙামাটি থানার অফিসার ইনচার্জ কবির হোসেন। এ দুর্ঘটনার ফলে রাঙামাটির সঙ্গে খাগড়াছড়ির সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে বলে রাঙামাটি থানার ওসি মো: কবির হোসেন জানিয়েছেন। তিনি বলেন, চট্টগ্রাম থেকে আসা পাথর বোঝাই ট্রাকটি রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি সড়কের কুতুবছড়ি বেইলি ব্রিজ অতিক্রম করার সময় সেতুটি ভেঙে পড়ে। এ দুর্ঘটনার পর থেকে রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি সড়কে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

ঘটনার বিবরনে জানা যায়, রাঙামাটির খাগড়াছড়ি সড়কের কুতুবছড়ি এলাকায় বেইলি ব্রিজ ভেঙে পাথর বোঝাই একটি ট্রাক খাদে পড়ে গেলে তিনজন নিহত হয়েছেন। দুর্ঘটনার পর রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি সড়কে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। মঙ্গলবার(১২ই জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ৬টায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। মঙ্গলবার সকালে সদর উপজেলার কুতুবছড়িতে এ দুর্ঘটনা ঘটে। সকালে পাথর বোঝাই ট্রাকটি রাঙামাটি থেকে খাগড়াছড়ি যাচ্ছিল। উপজেলার কুতুকছড়ি এলাকায় বেইলি ব্রিজ অতিক্রম করার সময় অতিরিক্ত ওজনের কারণে ব্রিজটি ভেঙে যায়। এ সময় পাথর বোঝাই ট্রাকটি খালে পড়ে ঘটনাস্থলেই তিনজন নিহত হন। নিহতদের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনার পর রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি সড়কে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে বলে জানান ওসি।

কুতুবছড়ি বাজারের ব্যবসায়ী সুমন বলেন, ভোরে বিকট শব্দ শুনে বাজারের সবাই দৌড়ে গিয়ে দেখি, পাথর বোঝাই একটি ট্রাক খালে পড়ে গেছে। একটু পর সেনাবাহিনী, ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ সদস্যরা এসে উদ্ধার তৎপরতা শুরু করে। তিনটি লাশ উদ্ধার করতে দেখা যায়।

রাঙামাটি সদর উপজেলার কুতুকছড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদ্ম কুমার চাকমা জানিয়েছেন, ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে। তিন যুগেও হয়নি সংস্কারের কাজ, বেহাল দশা বেইলি ব্রিজের অনাকাংখিত ঘটনায় অত্যান্ত দু:খজনক।

রাঙামাটির কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) কবির হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, চট্টগ্রাম থেকে পথর বোঝাই ট্রাকটি কুতুবছড়ি বেইলি ব্রিজ ভেঙে তিন জনের মৃত্যু হয়। রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। তিনি জানান উদ্ধার কার্যক্রম চলছে। সকালে পাথর বোঝাই ট্রাকটি রাঙ্গামাটি থেকে খাগড়াছড়ি সড়কে যাচ্ছিল। পথে উপজেলার কুতুবছড়ি এলাকায় বেইলি ব্রিজ অতিক্রম করার সময় অতিরিক্ত ওজনের কারণে ব্রিজটি ভেঙে যায়।

ওসি আরো জানান, চট্টগ্রাম থেকে পাথর বোঝাই ট্রাকটি রাঙামাটির নানিয়ারচরের দিকে যাচ্ছিল। পথে কুতুকছড়ি বাজার এলাকায় বেইলি ব্রিজ ভেঙে ট্রাকটি খাদে পড়ে যায়। এ সময় পাথর বোঝাই ট্রাকটি খালে পড়ে ঘটনাস্থলেই চালকসহ ট্রাকে থাকা তিন জন নিহত হন। পথে আজ সকাল সাড়ে ৬টার দিকে রাঙামাটির নানিয়ারচর ও সদর উপজেলার সংযোগকারী বেইলি ব্রিজ ভেঙে ট্রাকটি নদীতে পড়ে যায়। নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। যান চলাচল চালু করার কাজ চলছে। তবে তাৎক্ষণিক নিহতদের পরিচয় জানা যায়নি।

রাঙামাটি ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার বেল্লাল হোসেন জানান, পাথর বোঝাই একটি ট্রাক ডুবে যাওয়া খবর শুনে আমরা ঘটনাস্থলে এসে দুই জনের লাশ উদ্ধার করি। আমাদের আসার আগেই স্থানীয় লোকজন একজনের লাশ উদ্ধার করে। মোট তিন জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। লাশ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। তবে নিহত দুইজনের নাম-পরিচয় পাওয়া গেলেও একজনের নাম তাৎক্ষণিকভাবে জানাতে পারেননি উদ্ধারকর্মীরা।

কুতুকছড়ি বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি বাবুল চৌধুরী বলেন, “পাথর বোঝাই ট্রাকটি চট্টগ্রামের দিক থেকে নানিয়ারচরের দিকে যাচ্ছিল,সম্ভবত সড়কের নির্মাণ বা সংস্কার কাজের জন্য পাথর নিয়ে। অতিরিক্ত ভারে সেতু ধসে পড়লে ট্রাকটি পানিতে তলিয়ে যায়।” তিনি বলেন, যে তিনজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে, তারা ওই ট্রাকের চালক-হেলপার কিনা, সে বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

রাঙামাটি সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী শাহ আরেফিন জানান, ট্রাকটিতে ওভার লোড পাথর বোঝাইয়ের কারণে ব্রিজটি ভেঙে গেছে। ট্রাকটি ‘অতিরিক্ত ভার’ বহন করায় সেতুটি ধসে পড়ে। আমরা পরীক্ষা নীরিক্ষা করছি। ব্রিজটি পুরো পাটাতন খুলে আবার নতুন করে বসাতে হবে। আমরা দ্রুততম সময়ের মধ্যে যান চলাচল শুরুর প্রক্রিয়া চেষ্টা করছি।

 

0 Shares