Home » জাতীয় » ছাতক পৌরসভা নির্বাচনে আ:লীগ-বিএনপির হাড্ডাহাড়ি লড়াই
ছাতক পৌরসভা নির্বাচনে আ:লীগ-বিএনপির হাড্ডাহাড়ি লড়াই

ছাতক পৌরসভা নির্বাচনে আ:লীগ-বিএনপির হাড্ডাহাড়ি লড়াই

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি :

সুনামগঞ্জে ছাতক পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আ’লীগ-বিএনপির ভোট লড়াই এখন উৎসবে পরিনত হয়েছে। পৌরসভার সর্বত্রই বইছে নির্বাচনী উত্তাপ, প্রচার প্রচারনায় এখন তুঙ্গে। পোষ্টারের সয়লাব হয়েছে। সময় যতই ঘনিয়ে আসছে প্রার্থীরাও বিজয়ের লক্ষ্যে পরিবর্তন করছেন তাদের প্রচারনার কৌশল। মেয়র পদে দু’জন প্রার্থী হওয়ায় ভোটাররাও তাদের প্রতিনিধি বাছাইয়ে চুলছেড়া বিশ্লেষনে করছেন হাট-বাজারে। দু’প্রার্থীর ক্ষেত্রে সরকার দল ও বিরোধি দল অন্যদিকে নবীন-প্রবীন, নারী-পুরুষ এবং যোগ্য-অযোগ্যতার বিষয়টি এখন ভোটাদের মুখ্য বিবেচনায় আসছেন।

আরও পড়ুনঃ খাগড়াছড়ি’র পৌর নির্বাচনে ইভিএমের প্রচার প্রচারণায় ব্যস্ত প্রার্থীরা

আগামী ১৬ জানুয়ারী অনুষ্ঠিতব্য ছাতক পৌরসভা নির্বাচনে আ’লীগ মনোনীত প্রার্থী, বর্তমান মেয়র আবুল কালাম চৌধুরী ও বিএনপি মনোনীত প্রার্থী, সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রাশিদা আহমদ ন্যান্সির মধ্যে একটি জমজমাট ভোটযুদ্ধের প্রত্যাশা করছেন পৌরবাসী। দলীয় মতবিরোধ না থাকায় অনেকটা সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছেন বিএনপির প্রার্থী রাশিদা আহমদ ন্যান্সি। অপরদিকে দলীয় কোন্দলে আ’লীগের এমপি সমর্থীত পক্ষ নিরব থাকায় একটু পিছনে রয়েছেন আ’লীগ মনোনীত প্রার্থী আবুল কালাম চৌধুরী।

যে কারনে এখানের পৌর নির্বাচনকে মর্যাদার লড়াইও মনে করছেন অনেকে। নির্বাচন ১৯৯৭ সালে প্রতিষ্ঠিত ছাতক পৌরসভা ইতিমধ্যেই ৪টি নির্বাচনী কাল পার করে চলছে ৫ম বারের নির্বাচনী প্রচার-প্রচারনা তুঙ্গে। ১৯৯৯ সালে এ পৌরসভায় প্রতিষ্ঠাকালিন নির্বাচনে পৌর চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হন আ’লীগ নেতা আলহাজ্ব আব্দুল ওয়াহিদ মজনু।

ইতিমধ্যেই ন্যান্সির পক্ষে প্রচারনায় মাঠে রয়েছেন বিএনপির কেন্দ্রিয় সহ সাংগঠনিক সম্পাদক, সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি, সাবেক এমপি কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমানসহ জেলা-উপজেলার বিএনপি নেতৃবৃন্দ। পৌরসভা নির্বাচনে ভোট বিপ্লবের মাধ্যমে মেয়র পদ দখল নিতে বিএনপির নেতা-কর্মীরা চষে বেড়াচ্ছে নির্বাচনী মাঠ।

তবে সুনামগঞ্জ জেলা আ’লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নূরুল হুদা মুকুটসহ নেতৃবৃন্দ নৌকার পক্ষে প্রচারনায় নেমেছেন। বিগত নির্বাচন গুলোতেও আ’লীগের একটি বলয় দলীয় প্রার্থীকে অসহযোগিতা করতে দেখা গেছে। নির্বাচনে নিজের বিজয়ের ব্যাপারে বিএনপি প্রার্থী রাশিদা আহমদ ন্যান্সি জানান, জনবিচ্ছিন্ন নয়, জনবান্ধব মেয়র হতে তিনি প্রার্থী হয়েছেন।

 

 

 

0 Shares