Home » জাতীয় » জ্বালানি দক্ষতা ও নবায়নযোগ্য জ্বালানি সংক্রান্ত সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর

জ্বালানি দক্ষতা ও নবায়নযোগ্য জ্বালানি সংক্রান্ত সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর

 

ঢাকা :

টেকসই ও নাবায়নযোগ্য জ্বালানি উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (স্রেডা) এবং বাংলাদেশ গার্মেন্ট ম্যানুফেকচারারস এন্ড এক্সপোর্টারস এসোসিয়েশন (বিজিএমইএ) জ্বালানি দক্ষতা ও নবায়নযোগ্য জ্বালানি সংক্রান্ত সক্ষমতা বৃদ্ধিতে সহযোগিতার জন্য আজ ভার্চুয়ালি একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করেছে। সমঝোতা স্মারকে স্রেডার পক্ষে স্রেডার সচিব নিয়াজ রহমান ও বিজিএমইএ’র পক্ষে প্রতিষ্ঠানটির সচিব কমোডোর মোহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক (অব.) স্বাক্ষর করেছেন।

সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক উপদেষ্ঠা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী বীর বিক্রম বলেন, উন্নত দেশের অভিজ্ঞতা ও প্রযুক্তি বিনিময় করতে পারলে আমাদের জ্বালানি খাত আরো সমৃদ্ধ হবে। জ্বালানি সাশ্রয়ের ওপর গুরুত্ব দিয়ে তিনি বলেন, নেট মিটারিং সিস্টেম ব্যবসায়িদের বিদ্যুৎ বিলে স্বস্তি দিবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, নবায়নযোগ্য জ্বালানির প্রসারে সরকার উৎসাহ দিচ্ছে। কৌশলগত পরিকল্পনা, আইন ও বিধি নবায়নযোগ্য জ্বালানিসহ জ্বালানি ব্যবস্থা উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে। তিনি বলেন, মোট জ্বালানির ৪৮ ভাগ শিল্পখাত ব্যবহার করে। আর এই জ্বালানির ৩০ ভাগ ব্যবহার করে টেক্সটাইল ও তৈরি পোশাক খাত। টেক্সটাইল ও তৈরি পোশাক খাত যদি উন্নত জ্বালানি সাশ্রয়ী প্রযুক্তি ব্যবহার করে তবে ১৭ দশমিক ৬ ভাগ কম জ্বালানি লাগবে। এতে বিশাল পরিমাণ জ¦ালানি সাশ্রয় হবে।

সমঝোতা স্মারকটি জ্বালানি দক্ষতা ও নবায়নযোগ্য জ্বালানি, সোলার রুফটপ প্রকল্প বাস্তবায়ন, সবুজ অর্থায়ন, শিল্পসমূহের টেকসই অর্জনে যৌথভাবে সহযোগিতার মাধ্যমে বিজিএমইএ’র সদস্যদের সক্ষমতা বৃদ্ধিতে কাজ করবে।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস, স্রেডার চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলাউদ্দিন, বিজিএমইএ’র সভাপতি ড. রুবানা হক ও জিআইজেড এর কান্ট্রি ডিরেক্টর ড. অ্যাঞ্জেলিকা ফ্লেডারম্যান (Dr. Angelika Fleddermann) অনলাইনে সংযুক্ত থেকে বক্তব্য রাখেন।ত.বি

0 Shares