Home » প্রধান খবর » টানা ৪দিনের পনিতে তলিয়ে গেছে যশোরের শার্শা ও বেনাপোলে কৃষকের লাতিত স্বপ্ন

টানা ৪দিনের পনিতে তলিয়ে গেছে যশোরের শার্শা ও বেনাপোলে কৃষকের লাতিত স্বপ্ন

বেনাপোল প্রতিনিধি:-
টানা ৪দিনের ঝড় ও প্রবল বৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে যশোরের শার্শা ও বেনাপোলের বিস্তীর্ণ এলাকার বোরো ধান পাট ও সবজি ক্ষেত। কৃষকের উঠেছে মাথায় হাত। চলতি মৌসুমে ধানের ফলন ভাল হলেও বৈরী আবহাওয়া ও শ্রমিক সংকটের কারণে সঠিক সময়ে ধান কাটতে পারেনি কৃষকরা। ফলে পনিতে তলিয়ে গেছে কৃষকের দীর্ঘদিনের লাতিত স্বপ্ন ।
শার্শা উপজেলার বেনাপোল গোগা পুটখালি বাহাদুরপুর-কায়বা উলাশি ও নিজামপুরসহ ১১টি ইউনিয়নের অধিকাংশ ধানক্ষেত তলিয়ে গেছে পানিতে। জীবন জীবিকার তাগিদে বাসাবাড়িতে সড়কে সহ বিস্তন্ন এলাকায় ক্ষতিগ্রস্ত ধান গোছাতে পরিশ্রম করছেন কৃষক কৃষাণিরা। চাষিদের মুখে হতাশার ছাপ। পানিতে পচে নষ্ট হচ্ছে ধান। শ্রমিক সংকটে চাষিরা।বুক সমান পানি থেকে ভেলা করে ক্ষতিগ্রস্ত ধান আনছেন চাষিরা। কিছুটা ক্ষতি পুশিয়ে নিতে দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন তারা। অপর্যাপ্ত ভেড়ীবাধ সহ পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা না থাকায় হাজার হাজার হেক্টর ধানক্ষেত পানিতে নষ্ট হচ্ছে
শ্রমিকরাও পড়েছেন বিপাকে। মুজুরি বেশি পেলেও পানি থেকে ধান কাটা বাধা ও ছাড়াতে শ্রম লাগছে বেশি-ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে চাষি ও শ্রমিকরা ।
শার্র্শা উপজেলায় ২৩ হাজার ৫৭০ হেক্টর জমিতে বোরো ধান চাষ হয়েছে। তবে পানিতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে অনেক ধানক্ষেত। ক্ষয়ক্ষতি নিরপনে চেষ্টা চালাচ্ছে উপজেলা কৃষি বিভাগ। পানি নিষ্কাশনে বৃহৎ একটি পরিকল্পনা ও প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানান উপজেলা কৃষি সম্প্রসারন অফিসার তরুন কুমার বালা।
জলাবদ্ধতা নিরসনে খাল খননসহ সরকারের কাছে ধানের দাম বৃদ্ধি ও ভর্তুকির দাবি ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাবাসির।
0 Shares