Home » জাতীয় » ট্রিপল মার্ডারের আসামিদের গ্রেপ্তার, বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

ট্রিপল মার্ডারের আসামিদের গ্রেপ্তার, বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

 

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি : মুন্সীগঞ্জের আলোচিত ট্রিপল মার্ডারের মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও সমাজ সেবক আওলাদ হোসেন মিন্টু, কলেজছাত্র ইমন পাঠান ও সাকিবের হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তারের মাধ্যমে কঠোর শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে । শনিবার শহরের মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে কয়েক হাজার নারী-পুরুষ এই মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে। মানববন্ধন শেষে তারা বিক্ষোভ মিছিল বের করে এসময় তারা ট্রিপল মার্ডারের সাথে জড়িত সকল আসামিকে দ্রুত গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি জানান।

আরও পড়ুন :

সুনামগঞ্জে সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনায় আরও ১জন গ্রেপ্তার

মুন্সীগঞ্জে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা এমসিবি

এসময় নিজের সন্তানের নিরাপত্তা চেয়ে নিহত আওলাদ হোসেন মিন্টুর স্ত্রী খালেদা আক্তার বলেন, এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। এমন নির্মম ভাবে ৩ জন মানুষকে হত্যা করতে পারেনা। হত্যাকারীরা যেন কোনো ভাবে আইনের ফাঁক ফোকর দিয়ে বেড়িয়ে না যায় সরকারের প্রতি এমন দাবি তার।

মানববন্ধনে নিহত আওলাদ হোসেন মিন্টু প্রধানের ছোট্র কন্যা শিশু তার বাবার হত্যাকারীদের বিচার চেয়ে ফেস্টুন হাতে নিয়ে হত্যার প্রতিবাদ জানায়।

এসময় নিহতদের পরিবারের সদস্য ছাড়াও মুন্সীগঞ্জ পৌর মেয়র হাজী ফয়সাল বিপ্লবসহ সর্বস্থরের নারী পুরুষ অংশ নেন।

উল্লেখ্য- গত ২৪ মার্চ বুধবার বিকেলে উত্তর ইসলামপুর এলাকায় স্থানীয় একটি বিরোধ নিয়ে রাত ১০ টার দিকে দুই পক্ষকে নিয়ে সালিসে বসে মিন্টু প্রধান এসময় এক পক্ষের জামাল হোসেন, সৌরভ,সিহাব,শামীম,অভি কিশোর গ্যাং ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে সালিসীর বিচারক ৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আওলাদ হোসেন মিন্টু প্রধান (৪০),কলেজছাত্র মো. ইমন হোসেন (২২), মো. সাকিব হোসেন (১৯) কে তাদের উভয়ের বাড়ি উত্তর ইসলামপুর এলাকায়। পরে মিন্টু প্রধানের স্ত্রী খালেদা আক্তার বাদী হয়ে ঘটনার পরদিন ২৫ মার্চ বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১২ টার পর একটি হত্যা মামলা করেন। মামলায় ১২ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরো ১০-১৫ জনকে আসামি করা হয়।

ইতোমধ্যে হত্যা কাণ্ডের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তাদের মধ্যে ঘটনার দিন রাতে (২৪ মার্চ) ৬ জন ও গত শুক্রবার (দুই এপ্রিল) ঢাকা থেকে একজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

0 Shares