Home » আন্তর্জাতিক » দুই মালিকের জীবন বাঁচালো বিড়াল

দুই মালিকের জীবন বাঁচালো বিড়াল

 

গৃহপালিত পশুদের প্রভুভক্তির নানা কাহিনী শোনা যায়, বিশেষ করে কুকর ও ঘোড়ার। কিন্তু এবার এক জোড়া প্রভুভক্ত বিড়ালের খোঁজ পাওয়া গেছে। তাদের প্রচেষ্টায় প্রাণে বেঁচেছেন ভূমিধসে বাড়ি ভেঙে মৃত্যুর মুখে থাকা ইতালির এক দম্পতি। ঘটনাটি আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমগুলোতে ফলাও করে প্রচারিত হয়েছে।

ইতালির ক্যাম্পো লিগুরে এলাকার বাসিন্দা ক্লাওডিও পিয়ানা ও সাবরিনা দম্পতি। সোমবার রাতে তারা প্রতিদিনের মতোই ঘুমিয়ে পড়েন। কিন্তু ওই রাতে প্রচণ্ড ঝড় হয়। ঝড় ও প্রবল বর্ষণের কারণে ওই অঞ্চলের নদীতে বান ডাকে, দেখা দেয় ভয়াবহ ভূমিধস। কিন্তু এসবের কিছুই টের পাননি ঘুমিয়ে থাকা পিয়ানা ও সাবরিনা।

ভূমিধসে ভেঙে পড়তে থাকে তাদের বাড়িটি। ধসে পড়া বাড়ির সঙ্গে তারা দু’জনও মারা যেতে বসেছিলেন। কিন্তু বাড়িটি পুরোপুরি ভেঙে পড়ার আগেই বিষয়টি টের পেয়ে যায় তাদের দুই পোশা বিড়াল সিম্বা ও মোস। তারা দ্রুত পিয়ানা ও সাবরিনা দম্পতির বেডরুমে ছুটে যায় এবং মিউ মিউ করে তাদের ঘুম ভাঙানোর চেষ্টা করতে থাকে। বিড়াল দুটির চিৎকারে একসময় ঘুম ভেঙে যায় ওই দম্পতির। তারা জেগে দেখেন ছাদ থেকে প্লাস্টার খসে পড়ছে। ভেঙে পড়ছে ঘরের দেয়ালগুলো। তারা দ্রুত বিছানা ছেড়ে বাইরে বেরিয়ে আসেন এবং গাড়িতে উঠে পালানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু বানের জল ও কাদায় আটকা পড়ে তাদের গাড়িটি। পরে দমকল কর্মীরা এসে তাদের উদ্ধার করে।

কিন্তু উদ্ধার হওয়া ওই দম্পতি পরে আর নিজেদের বাড়িতে ফিরতে পারেননি। কেননা ইতিমধ্যে তাদের দোতলা বাড়িটি পুরোপুরি ভেঙে পড়েছে। সেটি এখন কেবলই একটি ধ্বংসস্তূপ। তবে বাড়ি খোয়ালেও আফসোস নেই পিয়ানা ও সাবরিনার। নিশ্চিত মৃত্যুর মুখ থেকে বেঁচে গেছেন তারা। একই সঙ্গে তাদের জীবন রক্ষাকারী বিড়াল দুটি-ও বেঁচে আছে। আর এতেই তারা খুব খুশি।

সোমবার রাতে ইতালির উত্তরাঞ্চলীয় এলাকায় আঘাত হানা ভয়াবহ ওই ঘূর্ণিঝড়ে এক ট্যাক্সিচালক নিহত হয়েছেন। ঘরবাড়ি হারিয়ে গৃহহীন হয়েছেন আরো বহু মানুষ। সূত্র গালফ নিউজ

নিউটার্ন.কম/AR

11 Shares