Home » আন্তর্জাতিক » পরকীয়া’ সন্দেহে স্ত্রীর দু’হাত কেটে ফেললেন স্বামী!

পরকীয়া’ সন্দেহে স্ত্রীর দু’হাত কেটে ফেললেন স্বামী!

 

কয়েক দিন ধরেই স্ত্রীকে সন্দেহ করছিলেন স্বামী। এর মধ্যেই আবার ১০ দিন বাড়িতে ছিলেন না স্ত্রী। পরে বাড়ি ফিরলে ‘এই কয়দিন কোথায় ছিলেন’ এই নিয়ে শুরু হয় তুমুল অশান্তি। এর জেরেই ধারালো অস্ত্রের কোপে স্ত্রীর দু’হাত কেটে ফেলেন স্বামী।

ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশের কাডাপার কান্দ্রিগা গ্রামে গত মঙ্গলবার ঘটেছে এমন ঘটনা। এ ঘটনায় ওইদিন রাতেই ওই গৃহবধূর স্বামীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ভারতীয় গণমাধ্যম ইন্ডিয়া টাইমসের খবরে বলা হয়েছে, ওই গৃহবধূর নাম পদ্মাবতী। আর তার স্বামীর নাম শিবা। তারা দুজনেই কৃষিশ্রমিক। অন্যের চাষের জমিতে কাজ করে উপার্জন করেন।

ঘটনার তদন্তকারী পুলিশ অফিসার স্বামী রেড্ডি জানান, শিবার দ্বিতীয় স্ত্রী পদ্মাবতী। বিগত কয়েক দিন ধরে স্ত্রীকে সন্দেহ করতে শুরু করেন শিবা। এর মধ্যেই আবার ১০ দিন বাড়িতে ফেরেননি পদ্মাবতী। একটি শিবিরে ছিলেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বাড়িতে ফেরেন তিনি। এরপরেই তুমুল অশান্তি বাধে।

ওই পুলিশ অফিসার বলেন, ১০ দিন ধরে পদ্মাবতী কোথায় ছিলেন, শিবা তা জানতে চায়। শিবিরের কথা কেন পদ্মাবতী তাকে জানাননি, তা নিয়েও চোটপাট করেন। এ নিয়ে তুমুল অশান্তির মধ্যেই ধারালো অস্ত্রের কোপে স্ত্রীর দু’হাত কেটে ফেলেন শিবা। ওইদিন রাতেই তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

শিবার বিরুদ্ধে স্ত্রীকে খুনের চেষ্টাসহ আইপিসির একাধিক ধারায় মামলা রুজু হয়েছে। আর তার স্ত্রী পদ্মাবতীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলেও জানান পুলিশ অফিসার স্বামী রেড্ডি।

নিউটার্ন.কম/RJ

26 Shares