Home » আন্তর্জাতিক » পাকিস্তানের ক্রিকেট নীতির তীব্র সমালোচনায় জোন্স

পাকিস্তানের ক্রিকেট নীতির তীব্র সমালোচনায় জোন্স

পাকিস্তানের প্রধান কোচ ও নির্বাচকের দায়িত্বে আছেন মিসবাহ-উল হক। তার দ্বৈত ভূমিকা নিয়ে আগেই প্রশ্ন তুলেছেন অনেকে। তাদের মতে, একজন ব্যক্তি সৎভাবে একই সঙ্গে দুই রোল প্লে করতে পারেন না।

সহমত অস্ট্রেলিয়ার সাবেক ক্রিকেটার এবং জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার ডিন জোন্সেরও। এ জন্য পাকিস্তানের ক্রিকেট নীতির সমালোচনা করেছেন তিনি। মিসবাহকে দুই পদে অধিষ্ঠিত করায় পাক ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) গলদ দেখছেন সাবেক অজি।

জোন্স মনে করেন, একজন ব্যক্তি একই সঙ্গে কোচ-নির্বাচক হলে খেলোয়াড়রা ভয়ে তার সঙ্গে নিজেদের কারিগরি ও মানসিক সমস্যা নিয়ে কথা বলবে না। কারণ সমস্যা জানাজানি হলে তারা দল থেকেও বাদ পড়তে পারেন। এ শঙ্কা সবসময় তাদের মাথায় কাজ করবে।

জোন্স বলেন, কেউ একই সঙ্গে প্রধান কোচ ও নির্বাচকের ভূমিকায় থাকতে পারেন না। ধরুন আপনি একজন খেরণ্য়াড় এবং আপনার কিছু মানসিক ও কারিগরি সমস্যা আছে। আপনি যদি আপনার কোচকে সত্য কথা বলেন, তা হলে আপনাকে বাদ পড়তে হবে। কারণ দুর্বলতটা জানার পর কেউ কাউকে দলে রাখতে চায় না।

জোন্স অবশ্য চান নিজের দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করুক মিসবাহ। কিন্তু তিনি মনে করেন, এমন দুটি পদে থেকে সব কাজ সুচারুরূপে করা খুব কঠিন।

পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) দল ইসলামাবাদ ইউনাইটেডের প্রধান কোচের দায়িত্বে আছেন জোন্স। দলটিতে তার অধীনে খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে মিসবাহর। তাই একে অপরকে বেশ ভালোভাবেই চেনেন তারা।

কোচ ও নির্বাচক হিসেবে মিসবাহর প্রথম পরীক্ষা ছিল ঘরের মাঠে শ্রীলংকার বিপক্ষে। পেয়েছেন ফিফটি পার্সেন্ট মার্কস। সফরকারীদের ওয়ানডে সিরিজে হারিয়েছেন স্বাগতিকরা। তবে টি-টোয়েন্টি সিরিজে লংকানদের কাছে হেরেছেন তারা

নিউটার্ন.কম/AR

0 Shares