Home » জাতীয় » বাধ্যতামূলক প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন বাতিল, বেনাপোল দিয়ে ফিরেছেন আটকে পড়া ৪২৭৮ বাংলাদেশি

বাধ্যতামূলক প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন বাতিল, বেনাপোল দিয়ে ফিরেছেন আটকে পড়া ৪২৭৮ বাংলাদেশি

বেনাপোল প্রতিনিধি :-বাধ্যতামূলক প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন নিয়ম বাতিল করে নিজ বাড়িতে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশনা জারি করায় বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ভারতে লকডাউনে আটকে পড়া বাংলাদেশি যাত্রী প্রত্যাগমন বেড়েছে।বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে গত ৪০ দিনে দেশে ফেরেছে ৪২৭৮ বাংলাদেশী। এসময় ৭ বাংলাদেশীর মরদেহ এসেছ দেশে।যা গত ২দিনে এসেছে ৫৬৪ জন।ব্যবসা,চিকিৎসা ও ভ্রমণে গিয়ে ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলে করোনায় লকডাউনে আটকা পড়া বাংলাদেশিরা ভারতের পেট্রাপোল বন্দর হয়ে বিশেষ ব্যবস্থায় দেশে ফেরে। অনেক কষ্টে দেশে ফিরতে পেরে খুশি তারা। করোনার এ দুর্দিনে সবাইকে ঘরে থাকার ও সুরক্ষা নির্দেশনা মেনে চলার দাবি জানান ভারত থেকে আসা যাত্রীরা।দেশের মাটিতে পা রেখেই অনেকে আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েন।
ইমিগ্রেশন সূত্রে জানায়,ভারত থেকে যারা ফিরছিলেন করোনা সংক্রমণ রোধে তাদেরকে নিজ নিজ বাড়িতে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শ দেয়া হচ্ছিল। কিন্তু নিয়ম না মানায় হোম কোয়ারেন্টাইন নিয়ম বাতিল করে ৬ এপ্রিল থেকে সরকারি তত্বাবধানে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন চালু হয়। ভারত ফেরত যাত্রীরা বেনাপোল পৌর বিয়ে বাড়ি ও যশোর গাজীর দরগা প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে ১৪দিন অবস্থান শেষে ঝুঁকি মুক্ত হলে বাড়ি ফিরছিলেন। ১৩ মে, সরকারি নতুন নির্দেশনা জারিতে বলা হয়, কারো শরীরে করোনা উপস্বর্গ না থাকলে নিজ বাড়িতে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকবে। এতে সুস্থ্য অসুস্থ্য সবাই বাড়ি ফিরছেন।
বেনাপোল ইমিগ্রেশন ওসি মহাসিন হাবিব ও স্বাস্থ্য কেন্দ্রের মেডিকেল অফিসার আবু তাহের জানান, সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক এখন সবাইকে নিজ বাড়িতে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শ দিয়ে ছেড়ে দেয়া হচ্ছে।তবে কেউ করোনার সন্দেহ জনক হলে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। সুস্থ্য হলে চলে যাবে বাড়ি। নেয়া হবে খোঁজখবর।
তবে ফেরার সময় প্রাথমিকভাবে এরা সবাই করোনা সংক্রমণ মুক্ত বলে জানান ইমিগ্রেশন সংশ্লিষ্টরা। নানা দুভোগের কথা জানান যাত্রীরা ।

20 Shares