Home » আন্তর্জাতিক » ব্রাজিলে ট্রায়ালে চিনা টিকার কার্যকারিতা মিলল ৫০.৪%

ব্রাজিলে ট্রায়ালে চিনা টিকার কার্যকারিতা মিলল ৫০.৪%

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

চিনের সিনোভ্যাক বায়োটেকের বানানো করোনাভাইরাসের টিকার ব্রাজিলে হওয়া এক ট্রায়ালে প্রতিষেধকটি উপসর্গজনিত সংক্রমণ রোধে মাত্র ৫০ দশমিক ৪ শতাংশ কার্যকর বলে প্রতীয়মান হয়েছে।

মঙ্গলবার গবেষকদের জানানো এ হার গত সপ্তাহে ট্রায়ালের আংশিক ফলে পাওয়া কার্যকারিতার তুলনায় কম হলেও নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষগুলোর অনুমোদন পাওয়ার জন্য যথেষ্ট, জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

কোভিড-১৯ মহামারিতে বিশ্বের মধ্যে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মৃত্যু দেখা ব্রাজিলের সরকার সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের মধ্যে যে দুটি টিকা দেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে, সিনোভ্যাকের এ ‘করোনাভ্যাক’ তার একটি হওয়ায় ট্রায়ালের এ ফলকে ব্রাজিলের জন্য বেশ হতাশাজনক হিসেবেই দেখা হচ্ছে।

বুটেনটেন বায়োমেডিকেল সেন্টার গত সপ্তাহে চিনা এ টিকার ট্রায়ালের আংশিক ফল প্রকাশ করেছিল, যা সাধারণ মানুষের মধ্যে ব্যাপক আশাবাদ তৈরি করলেও অসংখ্য বিজ্ঞানী ও পর্যবেক্ষক এ ধরনের ফল প্রকাশের কঠোর সমালোচনা করেছিলেন।

রয়টার্স জানিয়েছে, ব্রাজিলের গবেষকরা গত সপ্তাহে ‘মৃদু থেকে তীব্র’ কোভিড-১৯ রোগীদের ক্ষেত্রে সিনোভ্যাকের টিকার ৭৮ শতাংশ কার্যকারিতা পেয়ে ব্যাপক উল্লসিত হয়েছিলেন। এ হারকে পরে তারা ‘হাসপাতালে ভর্তিযোগ্য রোগীদের ক্ষেত্রে টিকাটির কার্যকারিতা’ বলে বর্ণনা করেছেন।

সেসময় তারা ‘খুবই মৃদু’ আক্রান্ত, যাদের হাসপাতাল সেবার প্রয়োজন পড়েনি, তাদের মধ্যে চালানো টিকাটির ট্রায়াল নিয়ে কিছু বলেনি।

বুটেনটেনের ক্লিনিকাল গবেষণার মেডিকেল ডিরেক্টর রিকার্ডিও পালাসিওস মঙ্গলবার বলেছেন, নতুন যে কার্যকারিতার হার পাওয়া গেছে তাতে টিকা নেওয়া ‘খুব মৃদু’ আক্রান্তদের তথ্যও যুক্ত হয়েছে।

চিনা এ টিকার ট্রায়ালের টুকরো টুকরো ফল নিয়ে এরই মধ্যে বিশ্বজুড়ে উদ্বেগ সৃষ্টি হয়েছে; সিনোভ্যাকের এ টিকা যুক্তরাষ্ট্র বা ইউরোপের অন্য দেশগুলোর বানানো টিকাগুলোর মতো যাচাই বাছাইয়ের মুখোমুখি না হওয়ায় এর সত্যিকারের কার্যকারিতা নিয়ে অনেকে সন্দেহও প্রকাশ করছেন।

পালাসিওস এবং বুটেনটেনকে অর্থ দেয়া সাও পাওলোর রাজ্য সরকারের কর্মকর্তারা এখন টিকা নেয়া কোনো স্বেচ্ছাসেবককে যে কোভিড-১৯ এর উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়নি, সেই প্রাপ্তির উপরই বেশি জোর দিচ্ছেন।

এরকমটা হলেও তা ব্রাজিলের হাসপাতালগুলোতে কোভিড-১৯ রোগীদের ভয়াবহ চাপ কমাতে ভূমিকা রাখবে বলে মত জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের।

 

 

0 Shares