Home » প্রধান খবর » ভারতের প্রধানমন্ত্রী ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা উপহার, ২০০০ কেজি হাড়িভাঙ্গা আম পাঠালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

ভারতের প্রধানমন্ত্রী ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা উপহার, ২০০০ কেজি হাড়িভাঙ্গা আম পাঠালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

এম এ রহিম,বেনাপোল সীমান্ত-বাংলাদেশ:
বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে সোহার্দ্র্য ও সম্প্রীতিএবং দু দেশের মানুষের মধ্যে সোনালী অধ্যায় বিরাজ করছে। পারস্পরিক সম্পর্ক উন্নয়নসহ রয়েছে ভালবাসা, তারই ধারাবাহিকতায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর প্রতি ব্যক্তিগত সু সম্পর্কের কারণেই বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবরের মতো এবারও শুভেচ্ছা হিসেবে পাঠালেন পুষ্টিসমৃদ্ধ সুস্বাধু রসালো ফল মিষ্টি হাড়িভাঙ্গা আম।রাজশাহী এলাকার এ আমের কদর ও সুনাম রয়েছে দেশ ছাড়িয়ে বিশ্বেও। উন্নত জাতের এ আমের চাহিদাও রয়েছে ব্যাপক। অন্য আমের মতো কিছুটা দেখতে হলেও এর রয়েছে আলাদা স্বাদ ও গন্ধ। রসে গুনে ভরপুর এ আম। জ্যৈষ্টের শেষের দিকে পাকে এ আম। বছরে এসময়ে আমের সরবরাহ থাকে ভাল। হাড়িভাঙা আমের চাষ বাড়ছে দেশে।


-কলিকাতায় নিযুক্ত বাংলাদেশস্ত উপ হাইকমিশনার-শেখ মারফত তরিকুল ইসলাম বলেন, ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে দিনদিন সম্পর্ক উন্নয়ন হচ্ছে। বিভিন্ন দুর্দিনেও দু-দেশ একে অপরের প্রতি বাড়িয়েছে সহযোগিতার হাত। ইতিপূর্বে চিকিৎসা সামগ্রী খাদ্য ওষুধ, প্রশিক্ষিত ঘোড়া, কুকুর সহ বিভিন্ন শুভেচ্ছা উপহারও বিনিময় করেছে দু দেশ। এবার প্রতিবছরের ন্যায় ভারতে পাঠানো হলো আম। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে আমগুলো পৌঁছে দেয়া হবে বলে জানান তিনি।

বেনাপোল পেট্রাপোল চেকপোস্ট নোম্যান্সল্যান্ডে সোমবার দুুপুরে আম হস্তান্তর অনুষ্ঠানে গণ মাধ্যমকর্মিদের সাথে এসব কথা বলেন ভারতের কলিকাতায় নিযুক্ত উপ হাই কমিশনার -শেখ মারফত তরিকুল ইসলাম।বাংলাদেশের প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে শুভেচ্ছা উপহার হিসেবে ভারতের প্রধান মন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে ১০০০-কেজি করে সু মিষ্ট রসালো ফল হাড়িভাঙ্গা আম পাঠানো হয়েছে।ভারতের প্রধান মন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে আম পাঠানো হয় ইয়ারে। আর মুখ্যমন্ত্রীকে সোমবার দুপুরে ১০০০ কেজি আম পাঠনো হয় বেনাপোল স্থলপথে। ২শ কাঠুনে পাঠানো হয় আমগুলো। যার সিএন্ডএফ বেনাপোলের রবি ইন্টারপ্রাইজ। খুশি স্থানীয় ব্যবসায়িরা সহ বন্দর ব্যাবহারকারীরা। শ্রমিকরা বলেন প্রধানমন্ত্রীর পাঠানো আম বেনাপোলে হ্যান্ডলিং করতে পেরে মহা খুশি তারা। এটা তাদের কাছে অনুকরণীয় ও স্বরণীয় হয়ে থাকবে।


সিএন্ডএফ এজেন্ট বেনাপোল রবি ইন্টারপ্রাইজের স্বত্তাধিকারী রবিউল ইসলাম বলেন,সরকারি অফিসিয়ালি নির্দেশনা মেনেই আম পাঠানো হয়েছে।এসময় উপস্তিত ছিলেন দু দেশের কাস্টম কর্মকর্তারাসহ বাংলাদেশের শার্শা উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা নারায়ন চন্দ্র,এ এসপি জুযেল ইমরার,বন্দর উপ পরিচালক মামুন কবির তরফদার,ওসি কামাল হোসেন প্রমুখ।

0 Shares