Home » আন্তর্জাতিক » ভারতের ভিসা চাওয়ায় আমাকে জঙ্গি ডাকা হলো: সাকিব

ভারতের ভিসা চাওয়ায় আমাকে জঙ্গি ডাকা হলো: সাকিব

নিউটার্ন ডেস্ক
ইংল্যান্ডের তরুণ পেসার সাকিব মাহমুদ বলেছেন, ‘কোনো অপরাধ করিনি, তবুও হঠাৎ করেই আমাকে জঙ্গি ডাকা শুরু হলো। মানুষ ভেবেছে আমি বোধহয় ভারত সফরে গিয়ে কিছু একটা করার ষড়যন্ত্র করব। আমাকে আরও বাজে কিছু নামেও ডাকা শুরু করে তারা। পরিস্থিতি আসলেই খুব বিব্রতকর ছিল।’

সাকিব মাহমুদ ইংল্যান্ডে ক্রিকেট ক্যারিয়ার গড়লেও তার জন্মস্থান পাকিস্তানে।

সম্প্রতি ভারত-পাকিস্তানের মধ্যকার সীমান্ত সমস্যার কারণে প্রতিবেশী দুই দেশের সম্পর্কে ফাটল ধরে। আর দুই দেশের এমন পরিস্থিতির মধ্যেই ভারতের ভিসার আবেদন করেন সাকিব মাহমুদ। ভিসা না পাওয়ায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেকে ‘জঙ্গি’ বা ‘সন্ত্রাসী’ নামে ডাকতে থাকে সাকিবকে।

মূলত চলতি বছরের জানুয়ারিতে ইংল্যান্ড ‘এ’ দলের হয়ে ভারত সফর করার কথা ছিল ২২ বছর বয়সী এই তরুণ পেসারের। তবে ভিসা জটিলতায় শেষ পর্যন্ত আর যাওয়া হয়নি। এই ঘটনার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সাকিবকে নিয়ে বিদ্রূপ করতে থাকে সমর্থকরা।

সেই ঘটনার ৯ মাস ব্যবধানে ইংল্যান্ড জাতীয় দলে ডাক পেয়েছেন ল্যাঙ্কাশায়ারের এই পেসার। আসন্ন নিউজিল্যান্ড সফরে টেস্টের সঙ্গে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটেও সাকিবের ওপর আস্থা রেখেছে ইংলিশ ক্রিকেট বোর্ড।

এদিকে নিউজিল্যান্ড সফরের টেস্ট দলে জায়গা হয়নি জনি বেয়ারস্টোর। এবারের অ্যাশেজে খারাপ সময় কাটানো এই উইকেটরক্ষক উপেক্ষিত থাকলেও প্রথমবার ইংল্যান্ড দলে ডাক পেয়েছেন দুই ব্যাটসম্যান জ্যাক ক্রাউলি ও ডমিনিক সিবলি এবং পেসার সাকিব মাহমুদ।

অক্টোবর-নভেম্বরের নিউজিল্যান্ড সফরে আরেক উইকেটরক্ষক বেন ফকসকেও আমলে নেয়নি ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)। এর মানে হলো, কিউইদের বিপক্ষে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে প্রথম পছন্দের উইকেটরক্ষক জস বাটলার। এতদিন টেস্টে ইংল্যান্ডের ‘এক নম্বর’ উইকেটরক্ষক ছিলেন বেয়ারস্টো।

0 Shares