Home » জাতীয় » ভোলায় দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ,আহত ১৫,নৌকার নির্বাচনী অফিস ভাংচুর

ভোলায় দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ,আহত ১৫,নৌকার নির্বাচনী অফিস ভাংচুর

ভোলা প্রতিনিধি :
পঞ্চম ধাপের পৌরসভা নির্বাচনে ভোলা পৌরসভায় দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে উভয় পক্ষের মহিলাসহ ১৫ সমর্থক আহত হয়েছে। এসময় উত্তেজিত সমর্থকরা স্থানীয় নৌকা প্রার্থীর অফিস ভাংচুর করেছেন ।

আরও পড়ুন :

ভোলায় এনজিও অফিস থেকে নারী কর্মির ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

ভোলায় ৪ কাউন্সিলর বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় নির্বাচিত
মঙ্গলবার(১৬ ফেব্রুয়ারি) সকাল সোয়া ১০ টার দিকে ভোলা পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী আসাদ হোসেন জুম্মান (উঠ পাখি মার্কা) সমর্থক ও অপর কাউন্সিলর প্রার্থী শওকত হোসেন (ডালিম মার্কা) সমর্থকদের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সকাল সোয়া ১০ টার দিকে ভোলা পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ড পুলিশ লাইন্স সংলগ্ন এলাকায় উট পাখি মার্কার প্রার্থী আসাদ হোসেন জুম্মানের সমর্থকদের নির্বাচনী গণসংযোগে হামলা করে ডালিম মার্কার কাউন্সিলর প্রার্থী শওকত হোসেন ও তার সমর্থকরা। ডালিমের সমর্থকরা উট পাখির সমর্থকদের ধাওয়া করে তাদের ব্রাক অফিস লগ্ন নৌকার নির্বাচনী অফিস ভাংচুর করে।
এই সময় অফিসে থাকা মহিলাকর্মিকে লাঞ্চিত করে ও আসবাসপত্র ভাংচুর করেন। এই ঘটনায় আসাদ হোসেন জুম্মানের সমর্থকরা একত্রিত হয়ে ডালিম মার্কার সমর্থকদের ধাওয়া দিলে ডালিম সমর্থকরা ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়।
পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে দু’পক্ষকে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। ঘটনা স্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
এই সময় ডালিম সমর্থকরা ২০ থেকে ২৫ টি হাত বোমা নিক্ষেপ করে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। এই ঘটনায় উভয় পক্ষের ১৫ জন আহত হয়। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ ঘটনায় পৌর ৪ নং ওয়ার্ডে সাধারণ ভোটারদের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে।
ভোলা সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. এনায়েত হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এবং ঘটনার সূত্রধরে আমরা পরবর্তী ব্যবস্থা নেব। তাছাড়া যে প্রার্থী বা সমর্থকরা সাধারণ ভোটারদের মাঝে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে আমরা তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

0 Shares