Home » কৃষি » মাদারগঞ্জে তীব্র শীতে হঠাৎ শিলাবৃষ্টি, ফসলের ক্ষতির আশঙ্কা

মাদারগঞ্জে তীব্র শীতে হঠাৎ শিলাবৃষ্টি, ফসলের ক্ষতির আশঙ্কা

খাদেমুল ইসলাম, জামালপুর :
জামালপুরের মাদারগঞ্জ উপজেলায় অসময়ে শিলাবৃষ্টিতে ফসলের ক্ষতির আশঙ্কা করছেন চাষিরা। বুধবার রাতে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় ঝড় ও শিলাবৃষ্টি হয়। অনেকে বলছেন এর আগে শীত মৌসুমে এত শিলাবৃষ্টি কখনও দেখেননি তারা।
জানা গেছে, বুধবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে শুরু হয় শিলা বৃষ্টি। প্রায় ১৫-২০ মিনিট ধরে চলা বৃষ্টিতে কোথাও কোথাও শিলার স্তুপ জমে বরফের মতো সাদা হয়ে যায়। পৌষের এই ব্যাপক শিলা বৃষ্টিতে ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ঝড় ও শিলাবৃষ্টির আঘাতে মাটির সঙ্গে নুইয়ে পড়েছে উঠতি ফসল আলু, গম, ভূট্টা, মরিচসহ বিভিন্ন ফসল ও সবজি। এ ছাড়া শিলা বৃষ্টিতে সদ্য গুটি আসা আম ও লিচুর ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। শিলাবৃষ্টির ফলে ফসল ও ফলের মুখ দেখার আগেই মাথায় হাত পড়েছে কৃষকের।

 


উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, চলতি মৌসুমে এ উপজেলায় এক হাজার ৭৫ হেক্টর জমিতে ভুট্টা, ৩১০ হেক্টর জমিতে গম, ৯১০ হেক্টর জমিতে সরিষা, এক হাজার ৫০ হেক্টর জমিতে মরিচ আবাদ করা হয়েছে। এছাড়াও পেঁয়াজ, রসুনসহ বিভিন্ন সবজি আবাদ করা হয়েছে।
বালিজুড়ী ইউনিয়নের সুখনগরী দ্বিপচর এলাকার কৃষক জহুরুল টিপু জানান, তিনি ৪ একর জমিতে ভুট্টার চাষ করেছেন। গতকাল বুধবার রাতের শিলাবৃষ্টিতে ৩ একর জমির ভুট্টার গাছ মাটিতে নুয়ে পড়ে নষ্ট হয়ে গেছে।
একই এলাকার কৃষক সুমন বলেন, রাতে হঠাৎ দমকা ঝড়ো হাওয়া বইতে থাকে। এর একটু পরেই শুরু হয় শিলা বৃষ্টি। এতে বিভিন্ন ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। আমার ৩ একর জমির ভুট্টা খেতের মধ্যে ২ একর জমির ভুট্টা গাছ নষ্ট হয়ে গেছে।
আবুল হোসেন নামে এক মরিচ চাষি জানান, এমন শিলাবৃষ্টি আগে কখনো দেখেননি তিনি। ব্যাপক শিলাবৃষ্টির ফলে তার এক একর জমির মরিচের খেত সবটুকু নষ্ট হয়ে গেছে।
উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. শাহাদুল ইসলাম জানান, উপজেলার কিছু এলাকার ভুট্টার গাছ নুয়ে পড়েছে। কৃষকরা যদি ভুট্টার গাছগুলো বেধে দেয়, তাহলে তেমন কোন ক্ষতি হবে না। অসময়ের এ বৃষ্টিতে ভুট্টা, মরিচ, পেঁয়াজ ও বিভিন্ন সবজিসহ সরিষা, গমের তেমন কোন ক্ষতি হবে না। শিলাবৃষ্টিতে কি পরিমাণ ফসলের ক্ষয়ক্ষতির হয়েছে তা নিরূপণ করা হচ্ছে। আমাদের অফিসারগণ মাঠে থেকে কৃষকদের যেন সব ধরণের সহযোগিতা প্রদান করেন, সে ব্যাপারে নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।

0 Shares