Home » জাতীয় » মেঘনায় বিলীন বসতঘর চাঁদপুরে

মেঘনায় বিলীন বসতঘর চাঁদপুরে

 

চাঁদপুর শহর রক্ষা বাঁধের পুরানবাজার হরিসভা এলাকায় আবারও ভাঙন দেখা দিয়েছে। মেঘনার ভাঙনে বিলীন হয়ে গেছে ৫-৬টি বসতঘর। আতংকে রয়েছে নদীতীর এলাকায় বসবাসকারী আরও ১০-১২টি পরিবার। ভাঙন ঠেকাতে বালিভর্তি ব্যাগ ফেলা শুরু করেছে পানি উন্নয়ন বোর্ড।

খবর পেয়ে জেলা প্রশাসক মো. মাজেদুর রহমান খান, পৌর মেয়র নাছির উদ্দিন আহমেদসহ পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

মেয়র নাছির উদ্দিন আহমেদ জানান, সোমবার রাতে হঠাৎ চাঁদপুর শহর রক্ষা বাঁধের হরিসভা এলাকায় মেঘনা নদীর ভাঙন দেখা দেয়। এ সময় নদীতীর লাগোয়া কয়েকটি বসতঘর ভাঙনের কবলে পড়ে।

পৌরসভার প্যানেল মেয়র ছিদ্দিকুর রহমান ঢালী জানান, আগস্ট মাসের শুরুতে পুরানবাজার হরিসভা এলাকায় মেঘনার তীব্র ভাঙন দেখা দেয়। মেঘনা নদীতীর রক্ষায় স্থায়ী ব্যবস্থা নেয়া না হলে ঐতিহ্যবাহী হরিসভা মন্দিরসহ পুরো পুরানবাজার এলাকা মেঘনা গর্ভে বিলীন হয়ে যেতে পারে।

চাঁদপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু রায়হান জানান, মেঘনায় তীব্র স্রোত থাকায় হরিসভা এলাকায় ভাঙন দেখা দিয়েছে। ভাঙন রোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। সোমবার রাত থেকে মঙ্গলবার দুপুর পর্যন্ত ভাঙন এলাকায় ৬ শতাধিক বালিভর্তি জিও ব্যাগ ফেলা হয়েছে। এখন ৩ হাজার বস্তা বালু ভর্তি জিও ব্যাগ ফেলা হবে। বিষয়টি স্থানীয় সাংসদ, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনিসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানানো হয়েছে।

নিউটার্ন.কম/AR

0 Shares