Home » প্রধান খবর » রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী সংস্থায় এবারও সভাপতি তপন মাহমুদ

রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী সংস্থায় এবারও সভাপতি তপন মাহমুদ

 

 

নিউটার্ন ডেস্ক
বাংলাদেশ রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী সংস্থার নতুন কার্যনির্বাহী পরিষদ গঠনের পর অন্যদের মাঝে সভাপতি তপন মাহমুদ ও সাধারণ সম্পাদক পীযূষ বড়ুয়া।

বাংলাদেশ রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী সংস্থায় পঞ্চমবারের মতো সভাপতি হলেন তপন মাহমুদ। নতুন সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন পীযূষ বড়ুয়া। গত শুক্রবার রবীন্দ্রসংগীতের শিল্পীদের এই সংগঠনের দ্বিবার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটমণ্ডলে। এখানে উপস্থিত ৭১ জন সদস্যের মতামতের ভিত্তিতে ১৪২৬-১৪২৭ মেয়াদের জন্য ২৩ সদস্যের কার্যনির্বাহী পরিষদ গঠিত হয়। কার্যনির্বাহী পরিষদের অন্য সদস্যরা হলেন—সহসভাপতি বুলা মাহমুদ, খন্দকার খায়রুজ্জামান কাইয়ুম ও আবদুল ওয়াদুদ, যুগ্ম সম্পাদক হিমাদ্রি শেখর ও তানজিনা তমা, সহসম্পাদক মাখন হাওলাদার ও বিষ্ণু মণ্ডল, অর্থ সম্পাদক শারমিন আহমেদ, সাংগঠনিক সম্পাদক অনিকেত আচার্য ও ফেরদৌসী কাকলি, দপ্তর সম্পাদক তপন কুমার সরকার, প্রচার সম্পাদক ফাহমিদা হোসেন ও সীমা সরকার। নির্বাহী সদস্যরা হলেন শাহনাজ রুমানা, ডলি চৌধুরী, খোকন চন্দ্র দাস, কাজল মুখার্জি, আবদুর রশীদ, রিফাত জামাল, দীপাঞ্জন মুখার্জি ও জয়ন্ত আচার্য।

বাংলাদেশ রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী সংস্থার নতুন পরিকল্পনার ব্যাপারে তপন মাহমুদ বললেন, ‘আমরা তো শুধু গান নিয়েই থাকি, কিন্তু শিল্পীদের সামাজিক অনেক দায়বদ্ধতাও রয়েছে। এবার আমরা গানের পাশাপাশি এই দিকটিতেও গুরুত্ব দিচ্ছি। এই যেমন এবার আমরা বিভিন্ন বৃদ্ধাশ্রমে যাব। তাঁদের সঙ্গে সময় কাটাব। তাঁদের রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের গান শোনাব। বড় বড় হাসপাতালেও যাব। গানও কিন্তু এক ধরনের থেরাপি। চিকিৎসকদের সঙ্গে তা নিয়ে আলোচনা করব। রোগীদের গান শোনাব, যাতে কিছুটা হলেও তাঁরা স্বস্তি পান। শিল্পীদের রক্তদানে উৎসাহিত করব।’

গান নিয়ে তপন মাহমুদ বললেন, ‘গতানুগতিক অনুষ্ঠান সব সময়ই হচ্ছে। এবার ব্যতিক্রম কিছু ভাবছি। পূর্ণিমার রাতে ধানমন্ডির রবীন্দ্রসরোবরে কিংবা রমনা বা সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বসে গান করব। বিভিন্ন জেলার সদস্যদেরও এ ধরনের আয়োজনের ব্যাপারে পরামর্শ দেব।’

সংগঠনটির নতুন কার্যনির্বাহী পরিষদের আয়োজনে প্রথম অনুষ্ঠান হবে আগামী ১ নভেম্বর। প্রখ্যাত সংগীতজ্ঞ কলিম শরাফীর মৃত্যুবার্ষিকী পালন করা হবে রাজধানীর শাহবাগের কেন্দ্রীয় গণগ্রন্থাগারের সেমিনার হলে। তপন মাহমুদ বললেন, ‘কলিম শরাফীর মৃত্যুবার্ষিকী ২ নভেম্বর। কিন্তু সেদিন কোথাও হলো পাইনি। অনুষ্ঠানে কলিম শরাফীকে স্মরণ করার পাশাপাশি তাঁর পছন্দের এবং তাঁর শেখানো গানগুলো সবাই করব।’

বাংলাদেশ রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী সংস্থার নতুন কার্যনির্বাহী পরিষদ নিয়ে তপন মাহমুদ জানালেন, সবার মতামতের ভিত্তিতে এবার পুরোনোদের পাশাপাশি তরুণদের বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। এর ফলে সংগঠনটিকে আরও বেশি গতিশীল করা সম্ভব হবে।

0 Shares