Home » জাতীয় » শাহজাদপুরে পুলিশের উপর কাউন্সিলরের লোকজনের হামলা

শাহজাদপুরে পুলিশের উপর কাউন্সিলরের লোকজনের হামলা

 

শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে লুটপাটে বাধা দেয়ায় পুলিশের উপর পৌর কাউন্সিলরের লোকজনের হামলার ঘটনা ঘটেছে। আজ শনিবার দুপুরে এই হামলার ঘটনায় একজনকে আটক করেছে শাহজাদপুর থানা পুলিশ।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, গত ৩ মে শাহজাদপুর পৌর শহরের পারকোলা গ্রামের বর্তমান কাউন্সিলর বেলাল হোসেনের গ্রুপ ও সাবেক কাউন্সিলর পীযূষ গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় আলী আজগর (৫৫) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়। এই মৃত্যুর ঘটনায় উভয় পক্ষ একে অপরের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে আসছে। হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে আলী আজগরের ছেলে জুয়েল রানা বাদী হয়ে ৮৫ জনকে আসািম করে শাহজাদপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে।

সংঘর্ষ ও হত্যার ঘটনার পর থেকেই সাবেক কাউন্সিলর পীযূষ গ্রুপের লোকজন ও পারকোলা গ্রামের মানুষ হামলা, ভাঙচুর ও গ্রেফতার আতঙ্কে এলাকা ছেড়ে গাঁ ঢাকা দেয়। সেই সুযোগে বর্তমান কাউন্সিলর বেলাল গ্রুপের লোকজন বিভিন্ন বাড়িতে হামলা ভাঙচুর ও লুটপাট চালাচ্ছে বলে অভিযোগ করে ভুক্তভোগীরা। সংঘর্ষ ও হত্যার ঘটনার পর থেকেই পারকোলা গ্রামের আইন শৃংখলা নিয়ন্ত্রণে রাখতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

আজ শনিবার দুপুর ১২টায় বেলাল গ্রুপের লোকজন একটি বাড়িতে লুটপাট করার সময় অবস্থানরত পুলিশ সদস্যরা বাধা দেয়। ক্ষিপ্ত হয়ে বেলাল কাউন্সিলরের লোকজন কর্তব্যরত পুলিশ সদস্যদের উপর হামলা চালায়। খবর পেয়ে শাহজাদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আতাউর রহমানের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। হামলার ঘটনায় দুলু খাতুন (২৮) কে আটক করে।

শাহজাদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আতাউর রহমান জানান, পুলিশের উপর হামলার খবর পেয়ে আমিসহ পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। এই ঘটনায় পারকোলা গ্রামের মোঃ সুমনের স্ত্রী দুলু খাতুনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়। তিনি আরও জানান, দুলু খাতুনকে লুটপাটের মামলায় আটক করা হয়েছে।

112 Shares