Home » প্রধান খবর » শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টা : রায়ে সন্তুষ্ট গোপালগঞ্জবাসী

শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টা : রায়ে সন্তুষ্ট গোপালগঞ্জবাসী

নিজস্ব প্রতিবেদক, নিউটার্ন.কম : গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় বোমা পুঁতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টা মামলায় নিম্ন আদালতে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ১০ আসামির ফাঁসির আদেশ বহাল রাখা হয়েছে। এতে সন্তোষ প্রকাশ করেছে গোপালগঞ্জের সাধারণ মানুষ। দ্রুত রায় কার্যকর করার দাবি জানিয়েছে দলীয় নেতাকর্মীসহ গোপালগঞ্জবাসী।

১৭ ফেব্রুয়ারি বুধবার রায় ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিজ নির্বাচনী এলাকা কোটালীপাড়ায় উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের পক্ষ থেকে একটি আনন্দ মিছিল বের করা হয়। ২০০০ সালের ২২ জুলাই গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় শেখ লুৎফর রহমান সরকারি আদর্শ কলেজ মাঠে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভা হওয়ার কথা ছিল। একটি চায়ের দোকানের পেছনে তারের সূত্র ধরে ওই দিন জনসভা স্থল থেকে ৭৬ কেজি ওজনের একটি বোমা উদ্ধার করা হয়। পরদিন ২৩ জুলাই ৮০ কেজি ওজনের আরও একটি শক্তিশালী বোমা উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় ওই দিনই কোটালীপাড়া থানা উপ-পরিদর্শক (এসআই) নূর হোসেন হত্যাচেষ্টা এবং বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে দুটি মামলা দায়ের করেন। দীর্ঘ শুনানীর পর আদালত ২০১৭ সালের ২০ আগস্ট দুই মামলার একটিতে ১০ আসামিকে মৃত্যুদণ্ড দেন আদালত। ২০২০ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর এ আপিল শুনানি শুরু হলে গত ১ ফেব্রুয়ারি শুনানি শেষে রায়ের জন্য ১৭ ফেব্রুয়ারি দিন ধার্য করা হয়েছিল।

কোটালীপাড়া পৌরসভার মেয়র হাজী মো. কামাল হোসেন বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হত্যা চেষ্টা মামলায় রায়ে কোটালীপাড়ার মানুষ আনন্দিত। এখন আমরা রায় বাস্তবায়ন দেখতে চাই।’কোটালীপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আয়নাল হোসেন শেখ বলেন, ‘আমরা বহু প্রতিক্ষিত রায় পেয়েছি। এ রায়ে আমরা খুশি। এখন রায়ের বাস্তবায়ন দেখতে চাই।’ গোপালগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব আলী খান বলেন, ‘সেদিন বোমা ব্লাস্ট হলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ অনেকেই মারা যেতেন। এ রায়ে আমরা খুশি। এ রায়ের মধ্য দিয়ে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।’
নিউটার্ন.কম/এআর

0 Shares