Home » আন্তর্জাতিক » সাড়া দেওয়ার বিড়ম্বনা দেশের ডাকে

সাড়া দেওয়ার বিড়ম্বনা দেশের ডাকে

 

সপ্তাহটা ছিল আন্তর্জাতিক ফুটবলের। নিজ নিজ ক্লাবের খেলা বাদ দিয়ে খেলোয়াড়েরা ছুটে গিয়েছিলেন দেশের ডাকে সাড়া দিতে। সে সাড়া দিতে গিয়েই অনাকাঙ্ক্ষিত চোটে পড়েছেন অনেকে
নেইমার, মদরিচ, গ্যারেথ বেলরা ভাগ্যকে দুষতেই পারেন। আন্তর্জাতিক ফুটবলে দেশের হয়ে খেলতে গিয়ে চোটে পড়েছেন এদের সকলেই।

চোট পাওয়া খেলোয়াড়দের মধ্যে সবচেয়ে বড় নাম নেইমারের। রোববার নাইজেরিয়ার বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচের ১২ মিনিটেই হ্যামস্ট্রিংয়ে টান পেয়ে মাঠ ছাড়তে হয় ব্রাজিল তারকাকে। চোট কতখানি গুরুতর তা প্রাথমিকভাবে ধারণা করা যায়নি। কাল তাঁর ক্লাব পিএসজির তরফ থেকে জানানো হয়েছে হালনাগাদ খবর। আবারও দীর্ঘ সময়ের জন্য মাঠের বাইরে চলে গেছেন নেইমার। এবার সময়সীমা প্রায় চার সপ্তাহ।তাঁর ক্লাব পিএসজি এমআরআই করে নিশ্চিত করেছে নেইমারের চোট। ক্লাবটির ওয়েবসাইটে জানানো হয়, বাঁ ঊরুতে নেইমারের পেশি গ্রেড টু পর্যায়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

ওদিকে রিয়াল মাদ্রিদ আর চেলসির চিন্তা বাড়িয়েছে ওয়েলস-ক্রোয়েশিয়া ম্যাচ। ইউরো বাছাইপর্বের ম্যাচ খেলতে নেমেছিলেন রিয়াল মাদ্রিদের দুই সতীর্থ ওয়েলশ উইঙ্গার গ্যারেথ বেল ও ক্রোয়েশিয়ার মিডফিল্ডার লুকা মদরিচ। দুজনই চোট নিয়ে ম্যাচ শেষ করেছেন।

মদরিচের চোটটাই চোখে পড়েছে বেশি। নব্বই মিনিটে ডান পায়ের পেশির চোটে পড়ে মাঠ ছেড়েছেন গত বারের ব্যালন ডি’অর জয়ী এ তারকা। তাঁকে ধরাধরি করে মাঠের বাইরে নিয়ে গেছেন ক্রোয়েশিয়ার চিকিৎসক দল। মদরিচের জায়গায় শেষ সময়ে মাঠে নামানো হয় ফিওরেন্টিনার মিডফিল্ডার মিলান বাদেলকে। জানা গেছে, পেশিতে আঘাত পেয়েছেন মদরিচ। গতবারও একই সমস্যায় পড়েছিলেন তিনি। সেবারও আন্তর্জাতিক বিরতিতে চোটে পড়েছিলেন। সেবার ১৬ দিন মাঠের বাইরে থাকতে হয়েছিল তাঁকে।

গ্যারেথ বেলের সমস্যা বাম পায়ে। ম্যাচের শেষ দিকে এসে বেলকে বাম পা নিয়ে অস্বস্তিতে থাকতে দেখা গেছে। ম্যাচের পর চোটের আশঙ্কাটাই সত্যি করেছেন ওয়েলসের কোচ রায়ান গিগস, ‘বাম পায়ের পেশিতে টান (ক্র্যাম্প) পড়েছে বেলের। ও চোটে পড়া সত্ত্বেও মাঠ থেকে উঠে আসতে চায়নি। তাই পুরো নব্বই মিনিট খেলানো হয়েছে।’ বেল আর মদরিচ ছাড়াও এ ম্যাচে চোট পেয়েছেন চেলসির দুই তারকা, ওয়েলসের মিডফিল্ডার ইথান এমপাদু ও ক্রোয়েশিয়ার মাতেও কোভাচিচ। আমপাদু পড়েছেন মাথার চোটে, ওদিকে কোভাচিচের চোটটা মাংসপেশির।

কোভাচিচ ও মদরিচের মতো মাংসপেশির চোটে পড়েছেন ইতালির উইঙ্গার ফেদেরিকো কিয়েসা। গ্রিসের সঙ্গে ম্যাচে এ চোট পেয়েছেন তিনি।ইতালির আরেক খেলোয়াড় ড্যানিলো ডি’অ্যামব্রোসিও চোট পেয়েছেন আঙুলে। ডি’অ্যামব্রোসিও ছাড়াও ইন্টার মিলানের চিন্তা বাড়িয়ে দিয়েছেন দলে নতুন আসা চিলির উইঙ্গার আলেক্সিস সানচেজ। কলম্বিয়ার বিপক্ষে খেলতে নেমে গোড়ালির চোটে পড়েছেন তিনি। তাঁর সতীর্থ ফ্যারি মেদেলও পড়েছেন পেশির চোটে। লুক্সেমবার্গের বিপক্ষে খেলতে নেমে পিঠের চোটে পড়েছেন পর্তুগিজ মিডফিল্ডার উইলিয়াম কারভালহো। অ্যাটলেটিকোর সেন্টারব্যাক স্টেফান সাভিচ হ্যামস্ট্রিংয়ের চোটে পড়ে তিন সপ্তাহের জন্য মাঠের বাইরে চলে গেছেন।

নিউটার্ন.কম/AR

0 Shares