Home » Uncategorized » সীতাকুণ্ডে ৪৯৪ বোতল ফেন্সিডিলসহ ২ মাদক কারবারী র‌্যাবের হাতে আটক

সীতাকুণ্ডে ৪৯৪ বোতল ফেন্সিডিলসহ ২ মাদক কারবারী র‌্যাবের হাতে আটক

 

জয়নাল আবেদীন,সীতাকুণ্ড : চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে অভিযান চালিয়ে ৪৯৪ বোতল ফেন্সিডিলসহ ২ মাদক কারবারীকে আটক করে র‌্যাব ৭।এসময় মাদক পরিবহনে ব্যবহৃত গাড়ি,চালক ও হেলপারকে আটক করা হয়েছে।যার আনুমানিক মূল্য দুই লাখ পঞ্চাশ হাজার ও জব্দকৃত ট্রাকের মূল্য ৫০ লাখ টাকা।

২৪ ফেব্রুয়ারি বুধবার রাত ৩ টা ১০ মিনিটে ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের সীতাকুণ্ড পৌরসদরের উত্তর বাজার সংলগ্ন টেকনো ফিলিং স্টেশন থেকে চালক ও হেলপারকে আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন ফেনী পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ড দাউদ পুর এলাকার হানিফ মিয়ার বাড়ির মৃত আঃ বারেকের পুত্র গাড়ি চালক আমান হোসেন (২৫),অন্য আসামি হলেন, ভূজপুর থানার ২ নং দাঁতমারা ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ড মুসলিম পুর এলাকার সফি ড্রাইভারের বাড়ির সফি আলমের পুত্র হেলপার মোঃ মহসিন।

র‌্যাব ৭ ও সীতাকুণ্ড মডেল থানা সূত্রে জানা যায়, ২৪ ফেব্রুয়ারি রাত ২ টা ১০ মিনিটে সিটি গেইট এলাকায় কতর্ব্যরত র‌্যাব টিম কুমিল্লা থেকে চট্টগ্রাম শহরে হলুদ ও নীল রঙের একটি ট্রাক যোগে মাদক চালানের সংবাদ পায়।গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এস. আই আলী আকবরের সঙ্গীয় ফোর্স এস. আই আব্দুল হক, এস. আই নুরুল ইসলাম,ল্যান্স নায়েক মোঃ সালাউদ্দিন (বিজিবি) সহ সঙ্গীয় ফোর্সের অন্যান্য সদস্যগণকে সাথে নিয়ে সীতাকুণ্ড পৌরসদর টেকনো ফিলিং স্টেশন এলাকায় চেক পোস্ট বসিয়ে সন্দেহ জনক যানবাহন তল্লাশি করে।রাত ২ টা ৫০ মিনিটের সময় হলুদ ও নীল রঙের একটি ট্রাক আসতে দেখলে সিগন্যাল দিয়ে থামানোর সঙ্গে সঙ্গে কৌশলে চালক ও তার সহযোগী পালাতে চেষ্টা করে।এসময় আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর চৌকস ভূমিকায় দুজনই ধরা পড়ে।অভিযানকালে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে চালক আমান হোসেন ও হেলপার মোঃ মহসিন মাদক পরিবহনের কথা স্বীকার করে।পরে তাদের গাড়ি (ফেনী ট- ১১০৭-৭২) তল্লাশি করে চালকের গাড়ির সিটের নিচে রাখা দুটি চটের বস্তায় ২০০ বোতল করে ৪০০ বোতল ফেনসিডিল,পরে আরো একটি প্লাস্টিকের ব্যাগ থেকে ৯৪ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার করা হয়। উদ্ধার মাদক দ্রব্যের আনুমানিক মূল্য দুই লাখ পন্ঝাশ হাজার ও জব্দকৃত ট্রাকের মূল্য ৫০ লাখ টাকা।

আটককৃতরা জানায়,তারা কুমিল্লা জেলার সীমান্ত এলাকা থেকে ট্রাকযোগে ফেনসিডিল নিয়ে চট্টগ্রাম যাচ্ছিল।তাদের বিরুদ্ধে মাদক দ্রব্য আইন ২০১৮ এর (৩৬) ১ সারণী ১৩ (গ) ৩৮/৪১ ধারায় মামলা দায়ের করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।r

0 Shares