Home » খেলাধুলা » সেরি আ চ্যাম্পিয়ন ইউভেন্তুস

সেরি আ চ্যাম্পিয়ন ইউভেন্তুস

 

স্পোর্টস ডেস্ক :
শুরুটা মলিন হলেও ধীরে ধীরে নিজেদের গুছিয়ে নিল ইউভেন্তুস। ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো দলকে এগিয়ে নেয়ার পর ব্যবধান দ্বিগুণ করলেন ফেদেরিকো বের্নারদেস্কি। সাম্পদোরিয়াকে হারিয়ে টানা নবম লিগ শিরোপা জয়ের উৎসবে মাতল তুরিনের ক্লাবটি।

ইতালির শীর্ষ লিগ সেরি আয় রোববার রাতে নিজেদের মাঠে ২-০ ব্যবধানে জিতেছে ইউভেন্তুস। গত ডিসেম্বরে লিগের প্রথম পর্বের দেখায় সাম্পদোরিয়ার মাঠ থেকে ২-১ গোলের জয় নিয়ে ফিরেছিল মাওরিসিও সাররির দল।

জিতলেই চ্যাম্পিয়ন-এই সমীকরণ নিয়ে খেলতে নেমে আগের ম্যাচে উদিনেজের কাছে হেরে অপেক্ষা বাড়িয়েছিল ইউভেন্তুস। সে অপেক্ষা ফুরালো দুই ম্যাচ হাতে রেখে।

৩৬ ম্যাচে ২৬ জয় ও পাঁচ ড্রয়ে ৮৩ পয়েন্ট নিয়ে বাজিমাত করল ইউভেন্তুস। ২০১১-১২ মৌসুম থেকে টানা লিগ শিরোপা জিতে চলেছে দলটি। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ইন্টার মিলানের পয়েন্ট ৭৬।

আগের পাঁচ লিগ ম্যাচে এক জয় পাওয়া ইউভেন্তুস বল দখলে এগিয়ে থাকলেও আক্রমণে তেমন সুবিধে করতে পারছিল না। দলের সেরা তারকা রোনালদোও শুরুতে ছিলেন মলিন।

৩৬তম মিনিটে ফাবিও কুয়াগলিয়ারেল্লার দূরপাল্লার শট স্বাগতিক গোলরক্ষক ভয়চেখ স্ট্যাসনি ফেরালে হতাশ হতে হয় সাম্পদোরিয়াকে।

৪২তম মিনিটে রোনালদোর শট ক্রসবারের ওপর দিয়ে বেরিয়ে যাওয়ার দুই মিনিট পর আরেকটি সুযোগ এসেছিল ইউভেন্তুসের সামনে। কিন্তু বের্নারদেস্কির জোরালো শট ফেরান গোলরক্ষক।

প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে এগিয়ে যায় ইউভেন্তুস। ডান দিকের ডি-বক্সের ওপর থেকে গোলমুখে ফ্রি-কিক না নিয়ে মিরালেম পিয়ানিচ বল বাড়ান বাঁ দিকে থাকা রোনালদোকে। দারুণ শটে জাল খুঁজে নেন এই পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড।

চলতি সেরি আয় এটি রোনালদোর ৩১তম গোল। লাৎসিওর চিরো ইম্মোবিলে ৩৪ গোল নিয়ে তালিকায় শীর্ষে আছেন।

দ্বিতীয়ার্ধে সাম্পদোরিয়ার রক্ষণে চাপ দিতে থাকা ইউভেন্তুস ব্যবধান দ্বিগুণ করে ৬৭তম মিনিটে। রোনালদোর ডান পায়ের কোনাকুনি শট গোলরক্ষক ঝাঁপিয়ে ফেরালেও পুরোপুরি বিপদমুক্ত করতে পারেননি। সামনে থাকা বের্নারদেস্কি সুযোগ কাজে লাগান অনায়াসে।

সাম্পদোরিয়ার ঘুরে দাঁড়ানো আরও কঠিন হয়ে যায় ৭৭তম মিনিটে। পিয়ানিচকে ফাউল করে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন দলটির মিডফিল্ডার থোরসবি।

৮৪তম মিনিটে রোনালদোর স্পট কিক ক্রসবার কাঁপিয়ে ফিরে এলে ব্যবধান আর বাড়েনি। চলতি সেরি আয় পেনাল্টি শটে ১২ গোল করা পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড এই প্রথম মিস করলেন।

যোগ করা সময়েও গোলের সুযোগ নষ্ট হয় ইউভেন্তুস। কর্নারে আদ্রিয়াঁ রাবিওর হেড গোলরক্ষক ফেরানোর পর গোলমুখ থেকে টোকা দিতে ব্যর্থ হন রোনালদো। এরপর গনসালো হিগুয়াইনের শট শেষ মুহূর্তে আটকে দেন এক ডিফেন্ডার।

0 Shares