Home » ইতিহাস ঐতিহ্য » ৪ অক্টোবর ঘটে যাওয়া নানান ঘটনা

৪ অক্টোবর ঘটে যাওয়া নানান ঘটনা

নিউটার্ন ডেস্ক: প্রতিদিনের উল্লেখযোগ্য ঘটনা কালক্রমে রূপ নেয় ইতিহাসে। আর সেসব ঘটনাই ইতিহাসে স্থান পায়- যা কিছু ভালো, যা কিছু প্রথম, যা কিছু মানব সভ্যতার আশীর্বাদ-অভিশাপ। ইতিহাসের দিনপঞ্জি মানুষের কাছে সব সময় গুরুত্ব বহন করে।এ গুরুত্বের কথা মাথায় রেখেই বাংলাদেশ জার্নালের পাঠকদের জন্য নিয়মিত আয়োজন ‘আজকের এই দিনের ইতিহাস’।

ঘটনাবলি:
১৩৩৭ – (৭৫৮ হিজরী) খলিফা মনসুর বাগদাদের ভিত্তি স্থাপন করেন।

১৫৩৫ – ইংরেজি ভাষার প্রথম বাইবেল ছাপা সম্পন্ন হয়।

১৮১৩ – লর্ড ময়রার বাংলার গভর্নর জেনারেল নিযুক্ত হন।

১৮৩০ – বেলজিয়াম তাদের স্বাধীনতা ঘোষণা করে।

১৮৫৫ – ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের উদ্যোগে ও নেতৃত্বে বিধবা বিবাহ আইন প্রবর্তিত হয়।

১৮৮৭ – কলকাতায় এমারেল্ড থিয়েটার প্রতিষ্ঠিত হয়।

১৯১১ – সাধারণের ব্যবহারের জন্য প্রথম লন্ডনের পাতাল রেলস্টেশন চালু হয়।

১৯৫৭ – সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা মহাশূন্যে প্রথম কৃত্রিম উপগ্রহ স্পুটনিক-১ সাফল্যের সাথে প্রেরণ করে মহাশূন্যের ওপর মানুষের নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠার কালপর্বের সূচনা করে।

১৯৫৮ – আটলান্টিক পারাপারে নিয়মিত বিমান চলাচল শুরু করে।

১৯৫৯ – সোভিয়েত নভোযান লুনিক-৩ সর্বপ্রথম চাঁদের সবচেয়ে কাছাকাছি গিয়ে ছবি তোলে।

১৯৬৩ – জাম্বিয়া পূর্ণ স্বায়ত্তশাসন লাভ করে।

১৯৬৩ – ক্যারিবিয়ান সমুদ্রে প্রচণ্ড ঝড় উঠেছিল। ঐ ঝড়ে ক্যারিবিয়ান সমুদ্রের সকল দ্বীপ এবং বন্দরের সরঞ্জামাদি আটলান্টিক মহাসাগরে নিমজ্জিত হয়। ভয়াবহ এই তুফানের গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ১৫০ কিলোমিটার। প্রায় ৬ হাজার লোক এই তুফানে মারা গিয়েছিল। মৃত্যুবরণকারীদের অধিকাংশই ছিল হাইতি এবং কিউবার অধিবাসী ।

১৯৬৬ – লেসোথা ব্রিটিশ উপনিবেশ থেকে স্বাধীনতা লাভ করে।

১৯৭৯ – যুগোশ্লাভাকিয়ার সঙ্গে বাংলাদেশের বাণিজ্য চুক্তি সম্পাদিত হয়।

১৯৯২ – ব্রাজিলে কারাগারে রক্তক্ষয়ী দাঙ্গা বাধে। এতে ১১১ জন বন্দী নিহত হয়।

২০০২ – নেপালেন রাজা জ্ঞানেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত প্রধানমন্ত্রী শের বাহাদুর দেউবাকে বরখাস্ত করে নির্বাহী ক্ষমতা গ্রহণ করেন।

জন্ম:

১২৮১ – ১০ম লুই, তিনি ছিলেন ফ্রান্সের রাজা।

১৭২০ – জোভান্নি পিরানেসি, তিনি ছিলেন ইতালীয় খোদাইকার ও ভাস্কর।

১৭৯৩ – চার্লস পিয়ারসন, তিনি ছিলেন ইংরেজি আইনজীবী এবং রাজনীতিবিদ।

১৮৩২ – উইলিয়াম গ্রিগস, তিনি ছিলেন একজন আবিষ্কারক।

১৮৬১ – ফ্রেডরিক রেমিংটন, তিনি ছিলেন একজন চিত্রশিল্পী।

১৮৯৭ – আলবার্ট বিটজিয়াম, তিনি ছিলেন সুইজারল্যান্ডের বিখ্যাত কথাসাহিত্যিক।

১৯০৩ – জন ভিনসেন্ট আটানসফ, তিনি ছিলেন বুলগেরীয় বংশোদ্ভুত একজন মার্কিন পদার্থবিদ।

১৯১৬ – ভিতালি গিঞ্জবার্গ, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী রাশিয়ান পদার্থবিদ।

১৯১৮ – কেনিচি ফুকুই, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী জাপানি রসায়নবিদ।

১৯১৯ – মণীন্দ্র রায়, তিনি ছিলেন একজন কবি।

১৯৩৮ – কার্ট ওয়ুটরিচ, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী সুইস রসায়নবিদ ও জৈবপদার্থবিদ।

১৯৬৭ – জাহিদ হাসান, তিনি বাংলাদেশের জনপ্রিয় নাট্যাভিনেতা।

১৯৭৯ – স্টিফান বুথ, তিনি ইংরেজ অভিনেতা ও গায়ক।

১৯৮৯ – ডাকোটা জনসন, তিনি আমেরিকান মডেল ও অভিনেত্রী।

মৃত্যু:

১৬৬৯ – রেমব্রন্ট ফান রেইন, তিনি ছিলেন হল্যান্ডের সবচেয়ে বিখ্যাত শিল্পী এবং ইউরোপের ইতিহাসের সেরা চিত্রশিল্পী ও ছাপচিত্রশিল্পী।

১৯৪৭ – ম্যাক্স প্লাংক, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী জার্মান পদার্থবিদ।

১৯৬৯ – নাটালিনো অট্টও, তিনি ছিলেন ইতালীয় গায়ক ও অভিনেতা।

১৯৭৪ – আবুল হাশিম, তিনি ছিলেন চিন্তাবিদ ও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব।

১৯৭৮ – নেপাল নাগ, তিনি ছিলেন একজন বিপ্লবী।

২০০০ – মাইকেল স্মিথ, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী ইংরেজ কানাডিয়ান রসায়নবিদ।

২০১২ – দেফনি স্লেটার, তিনি ছিলেন ইংরেজ অভিনেত্রী।

২০১৩ – ভো নগুয়েন গিয়াপ, তিনি ছিলেন ভিয়েতনামের যুদ্ধজয়ী বীর।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

নিউটার্ন.কম/RP

0 Shares