Home » জাতীয় » ৯৮ অভিযান চালিয়েছে কাউন্টার টেররিজম ইউনিট!

৯৮ অভিযান চালিয়েছে কাউন্টার টেররিজম ইউনিট!

 

প্রতিষ্ঠার পর থেকে দেশে ৯৮টি অপারেশন পরিচালনা করেছে কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট। এর মধ্যে ২৬টি স্পর্শকাতর অপারেশন। অপারেশনগুলোতে ৭৩ জন জঙ্গি ও সন্ত্রাসী আত্মঘাতি কিংবা গুলি বিনিময়ে নিহত হয়েছে।

বুধবার (৩০ অক্টোবর) সন্ধ্যায় খাগড়াছড়ি পুলিশ লাইন্সে আয়োজিত মিট দ্যা প্রেস’এ এমন তথ্য তুলে ধরেন ডিএমপির কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের এডিসি আব্দুল মান্নান।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন- খাগড়াছড়ি পুলিশ সুপার মোহা. আহমার উজ্জামান। এসময় খাগড়াছড়ির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এমএম সালাহউদ্দিন, সহকারী পুলিশ সুপার রওনক আলম, খাগড়াছড়ি প্রেস ক্লাবের সভাপতি জীতেন বড়ুয়া, খাগড়াছড়ি সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক কানন আচার্যীসহ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও স্থানীয় সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে এডিসি আব্দুল মান্নান বলেন, দেশে অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরি করতে একটি চক্র সব সময় সক্রিয় থাকে। তারা বিশেষ দিবস বা দিনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপপ্রচার চালিয়ে মানুষকে ভুল বোঝানোর চেষ্টা করেন। আমরা এমন গুজব মোকাবিলায় কাজ করছি। জেলায় জেলায় জনপ্রতিনিধি, ছাত্র, আলীমসহ বিভিন্ন শ্রেণির মানুষের কাছে গিয়ে উগ্রবাদ প্রতিরোধে ভূমিকা নিয়ে সেমিনার করে যাচ্ছি।

খাগড়াছড়ির পুলিশ সুপার মোহা. আহমার উজ্জামান বলেন, সময়ের সঙ্গে অপরাধের ধরন বদলে গেছে। আমরাও পরিবর্তিত অপরাধ দমনের জন্য আরও শক্তিশালীভাবে তৈরি হচ্ছি। এখন খুব সহজে সাইবার অপরাধ দমনে আমরা পারদর্শী।

পাহাড়ের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ইতোমধ্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীসহ সরকারের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তার উপস্থিতিতে রাঙ্গামাটিতে পাহাড়ের আইনশৃঙ্খলা বিষয়ে বৈঠক করেছি। সেখানে কিভাবে সন্ত্রাস দমন করা যাবে সে ব্যাপারে মতামত দিয়েছি। আমরা আশা করছি উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তা এসব বিষয় প্রধানমন্ত্রীর সাথে আলাপ করে একটি পরিকল্পনা তৈরি করবেন। যে পরিকল্পনা অনুযায়ী আমরা কাজ শুরু করবো।

জানা যায়, উগ্রবাদ প্রতিরোধে ভূমিকা নিয়ে বাংলাদেশ কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের উদ্যোগে গত ৩দিনে ৬টি সেমিনারের আয়োজন করা হয়। যেখানে সরকারি কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, ছাত্রসহ বিভিন্ন শ্রেণির মানুষ অংশ নেয়।

 

নিউটার্ন.কম/RJ

0 Shares